• বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০২ রমজান ১৪৪২

‘অশ্লীল’ ভিডিও দেখার দায়ে নারীসহ ৬ কর্মকর্তা চাকরিচ্যুত!

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২১  

ভারতের মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে বসে পর্ন দেখে চাকরি হারালেন দুই নারীসহ ছয় কর্মকর্তা। গোয়ালিয়রে জিওয়াজি বিশ্ববিদ্যালয়ে এ কাণ্ড ঘটেছে। দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে এমনটিই জানা গেছে।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় সাত থেকে আটজন কর্মী এমন কাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছিলেন। ইউনিভার্সিটির মধ্যে বসে অফিস আইডি ব্যবহার করে পর্ন ভিডিও দেখছিলেন। তারা একমাসে প্রায় ১২৫৬ মিনিট ভিডিও দেখেছেন। মোট আটটি আইডি দিয়ে লগ-ইন করে চলত পর্ন সিনেমার ভিডিও দেখা। এই কর্মচারীদের মধ্যে দুজন আবার নারী কর্মীও রয়েছেন।

ভারতের বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেগুলার ও আউটসোর্স কর্মচারীরাও পর্ন ওয়েবসাইটে ঢুকতেন। একটি গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ব্যাপারটি খতিয়ে দেখতে চান বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য। পরে একটি কমিটিও গঠন করেন। সেই কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার পরই এ ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের যে ফ্রি অ্যাক্সেস নেটওয়ার্ক রয়েছে, তা ব্যবহার করেই পর্ন ভিডিওর সাইটগুলোতে ভিডিও দেখতেন এই কর্মচারীরা। ব্যাপার প্রকাশ্যে আসার পরেই চারজন অস্থায়ী কর্মী ও একজন গেস্ট ফ্যাকাল্টিকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। যে ব্যক্তি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী কর্মী তাকে শো-কজ করে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে দুজন নারীও রয়েছেন।

কয়েকজন কর্মী জানিয়েছেন, তারা অন্য ওয়েবসাইট সার্চ করতে গিয়েছিলেন, কিন্তু পর্ন ভিডিওর ওয়েবসাইট নিজে থেকেই খুলে যাচ্ছিল। তবে গোটা ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের। একই সঙ্গে কঠোর হাতে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।