• শনিবার   ১৯ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪২৮

  • || ০৯ জ্বিলকদ ১৪৪২

এবার দুদক কর্মকর্তা-কর্মচারীর দুর্নীতি বন্ধে কমিটি

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৭ মে ২০২১  

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অভ্যন্তরীণ দুর্নীতি রোধে কমিশনের বিশেষ তদন্ত অনুবিভাগের মহাপরিচালক সাঈদ মাহবুবের নেতৃত্বে সাত সদস্যের বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করে প্রতিষ্ঠানের কাজে গতিশীলতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার ওই কমিটি গঠন করে একটি আদেশ জারি করা হয়।

সূত্র জানায়, সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, দপ্তর, অধিদপ্তরে দুর্নীতি প্রতিরোধ, ওইসব সংস্থার স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক টিম গঠন করে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে দুদক। এবার নিজেদের দুর্নীতি বন্ধে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হলো।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন দুদক গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালক মীর জয়নাল আবেদীন শিবলী, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা অনুবিভাগের পরিচালক উত্তম কুমার মণ্ডল, বিশেষ তদন্ত অনুবিভাগের পরিচালক মো. আকতার হোসেন আজাদ, পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) মোহাম্মদ আবদুল আওয়াল, পরিচালক (মানি লন্ডারিং) গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী ও একই অনুবিভাগের উপপরিচালক এ এস এম সাজ্জাদ হোসেন।

দুদক সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার স্বাক্ষরিত ওই আদেশে কমিটিকে কমিশনের ছয়টি ক্ষেত্রে সমস্যা চিহ্নিত করা ও সমস্যা সমাধানে সুপারিশ করে প্রতিবেদন দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। কমিশনের অফিস আদেশ অনুযায়ি ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন পেশ করতে হবে।

দুদক সচিব আনোয়ার হোসেন হাওলাদার গণমাধ্যমকে বলেন, দুদকের সার্বিক কার্যক্রমকে আরও স্বচ্ছ, জবাবদিহিমূলক ও দুদকের প্রতি মানুষের আস্থা অর্জনের লক্ষ্যে করণীয় সম্পর্কে সুপারিশ, মতামত প্রণয়ন করবে এই কমিটি।

কমিটির কর্মপরিধি :কমিটির কর্মপরিধির মধ্যে রয়েছে- কমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ পর্যালোচনা ও মতামত দেওয়া, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাজের মূল্যায়ন, অনুসন্ধান, তদন্তে দীর্ঘসূত্রতার কারণ চিহ্নিত করা ও সুপারিশ প্রণয়ন, কর্মকর্তাদের দক্ষতা, যোগ্যতা, ভাবমূর্তি ও জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে মতামত, সুপারিশ প্রদান, অভিযোগ অনুসন্ধান ও তদন্তের সময় সংশ্নিষ্ট কোনো কর্মকর্তা বা অন্য কোনো কর্মকর্তা কর্তৃক অভিযুক্ত ব্যক্তিকে হয়রানি করার বিষয়াদি চিহ্নিত করা ও সেগুলো সমাধানের সুপরিশ এবং কমিশনের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে সুপারিশ প্রণয়ন করা। কমিটি প্রয়োজনে যে কোনো সদস্য কো-অপ্ট করতে পারবে।