• বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

৪৯

গর্ভাবস্থায় এসব সবজি পাতে রাখতেই হবে

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০২০  

গর্ভকালীন সময়টা একজন নারীর জীবনে সেরা সময়। সবাই এই সময়টা খুব ভালোভাবে উপভোগ করতে চান। তবে শরীরের নানা পরিবর্তনের কারণে তা সম্ভব হয়ে ওঠে না। শরীরের পাশাপাশি মানসিক বিভিন্ন পরিবর্তন আসে। 

নিজেকে সুস্থ রাখতে খাবারের বিকল্প কিছু হতে পারে না। আবার গর্ভকালীন সময়ে শুধু মায়ের নিজের সুস্থতার বিষয় নয়। জড়িয়ে আছে অনাগত সন্তানের সুসবাস্থ্যের ব্যাপারও। সে কারণেই খাবারের বেলায় সচেতন হন। বিশেষ করে শীতের সময়টাতে বেশি করে শাক সবজি খেতে পারেন।

যদি এল্যার্জি বা হজমের সমস্যা না থাকে তাহলে শাক খেতে পারেন। এছাড়াও শীতকালীন যে সবজিগুলো হবু মায়ের খেতেই হবে। জেনে নিন-

বিটরুট
বিট গর্ভবতী মহিলাদের জন্য খুব উপকারী একটি সবজি। এটি ভিটামিন-সি ও ফাইবারের দুর্দান্ত উৎস। যে কারণে বিট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, বিপাক নিয়ন্ত্রণ করে, অ্যানিমিয়া ও অস্টিওপোরোসিস-এর ঝুঁকি কমায়। সেই সঙ্গে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে ও ভ্রুণের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

মটরশুঁটি 
মটরশুঁটি ভিটামিন-সি, ভিটামিন-কে, প্রোটিন এবং ফাইবার সমৃদ্ধ একটি খাবার। পাশাপাশি এতে উচ্চ পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামও রয়েছে। তাই এটি গর্ভবতী মায়েদের ডায়েটের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। গর্ভবতী মায়েদের সবচেয়ে বড় সমস্যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে এটি।
 
ব্রকোলি 
গর্ভাবস্থায় ডায়েটে ব্রকোলির ভূমিকা অতুলনীয়। এটি পটাশিয়াম, ফোটেল, লোহা, ভিটামিন-এ, সি এবং কে দ্বারা সমৃদ্ধ। এছাড়াও এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মা এবং সন্তানের ইমিউন সিস্টেমকে শক্তিশালী করতেও সাহায্য করে। পাশাপাশি ওজন নিয়ন্ত্রণ ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও সহায়ক।

টমেটো 
টমেটো কার্বোহাইড্রেট, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, বায়োটিন, ভিটামিন-সি, ভিটামিন-কে ইত্যাদির দুর্দান্ত উৎস, যা গর্ভাবস্থায় ভ্রূণের স্বাস্থ্যকর বিকাশে সহায়তা করা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করা, রক্ত ক্ষয় রোধ করা, হজম শক্তি উন্নত করা, হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখা, রক্ত সঞ্চালন উন্নত করা, ইউটিআই প্রতিরোধ করা, ইত্যাদি ক্ষেত্রে খুবই কার্যকর ভূমিকা পালন করে। তবে কতটা পরিমাণ খাওয়া উচিত তা চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে তবেই খাবেন। কারণ এটি বেশি খেলে শরীরের পক্ষে ভালো নয়।

পালং শাক 
গর্ভাবস্থায় ডায়েটে পালং শাক রাখা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এতে থাকা প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদানগুলি শিশুর জ্ঞানীয় বিকাশ ও গর্ভবতী মায়েদের মেজাজ ভালো রাখতে এবং গর্ভপাত রোধ করতে সহায়তা করে। এছাড়াও কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা, ভ্রুণের হাড় ও দাঁতের বৃদ্ধিতে সহায়তা করা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করা, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা, দৃষ্টিশক্তিকে উন্নত করা ও ত্বককে ঠিক রাখার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করে।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, মায়েদের শরীরে পুষ্টির ঘাটতির কারণে নবজাতক সন্তানও নানবিধ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। কখনও কখনও প্রিম্যাচিওর বেবিও জন্মগ্রহণ করে। তাই সকল হবু মায়ের উচিত চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে সঠিক ডায়েট গ্রহণ করা। আর এসব সবজি খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। আপনার জন্য দিনে কতটুকু সবজি প্রয়োজন তা আগে জেনে নিন। 

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর