• শুক্রবার   ০৭ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৪ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

পয়লা বৈশাখে নীরব-নিস্তব্ধ সাভারের বিনোদন কেন্দ্র

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৪ এপ্রিল ২০২১  

করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত আটদিনের লকডাউনের কারণে জন সমাগম সীমিত রাখায় বাংলা বর্ষবরণ ও বিদায় অনুষ্ঠানের সকল আয়োজন বন্ধ রয়েছে। এ কারণে সাভারের বিনোদন কেন্দ্রগুলো রয়েছে নীরব-নিস্তব্ধ।

লকডাউনের কারণে বন্ধ থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, আশুলিয়ার ফ্যান্টাসি কিংডম, নন্দন পার্ক ও ধামরাইয়ের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নেই নববর্ষের আয়োজন। প্রতিবছর সাভার পৌরসভা এলাকা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও ধামরাই শহরে শোভাযাত্রা বের হলেও এবার বন্ধ রয়েছে এসব কর্মসূচিও।

বুধবার  সকালে লকডাউনের শুরু থেকে সাভারের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এই চিত্র দেখা গেছে।

সাভার উপজেলা সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি পারভীন ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাস আসলে সকল অনুষ্ঠানই বন্ধ করে দিয়েছে। এ কারণেই এবছর বর্ষবরণ অনুষ্ঠানও বন্ধ। সাভারে কোথাও কোনো কর্মসূচি রাখা হয়নি। এছাড়া মানুষের স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি বিবেচনায় আমরা এবছর সরকারি নির্দেশনা মেনে সব আয়োজন থেকে সরে এসেছি।

ঢাকা জেলা পুলিশের সাভার সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) শাহীদুল ইসলাম জানান, চৈত্র মাসের শেষ ও পয়লা বৈশাখের শুরুতে ঢাকার অদূরে সাভার, ধামরাই ও আশুলিয়ার বিনোদন কেন্দ্রগুলো জনসমুদ্রে পরিণত হতো। সড়কে সড়কে বসতো বৈশাখী মেলা। তবে এবারে সবই বন্ধ। লকডাউনের কারণে সবখানে বইছে কবরের নীরবতা। এমনকি মার্কেটগুলো বন্ধ থাকায় নেই হালখাতা খোলা, আপ্যায়ন ও পান্তা-ইলিশ খাওয়ার আয়োজন।


অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান, নিত্য প্রয়োজনীয় যেসব সেবা রয়েছে সেসব গাড়ি চলছে। এর বাইরে মানুষ রাস্তায় নামা নিষেধ। রিকশা চলাচলও বন্ধ রয়েছে। এছাড়া প্রবেশদ্বারগুলোতে (আমিনবাজার, হেমায়েতপুর, বিরুলিয়া, আশুলিয়া, বাইপাইল, মরাগাঙ, ধামরাইয়ের বারবাড়িয়া) চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। আমরা সর্বোচ্চ তৎপর ব্যবস্থা নিয়েছি সবখানেই।