• শনিবার   ১৯ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪২৮

  • || ০৯ জ্বিলকদ ১৪৪২

‘ভবিষ্যতের ভাষা’ প্রোগ্রামিং শিখতে হবে সবাইকে : পলক

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১ জুন ২০২১  

বঙ্গবন্ধুর সোনার মানুষ গড়ে তুলতেই সরকার উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে জাতীয়ভাবে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে উল্লেখ করে রাজনীতিবিদ কিংবা সাংবাদিক সবাইকেই ‘প্রোগ্রামিং’ শেখার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। একইসঙ্গে ফেসবুক, ইউটিউব আর পাবজিতে ব্যস্ত না থেকে নতুন প্রজন্মকে প্রোগ্রামিং শেখার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ভবিষ্যতের জন্য সন্তানকে প্রস্তুত করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মাতৃভাষার মতোই কম্পিউটারের ভাষা কোডিং জানতে হবে। সেজন্য তিনি নিজেও কিছুটা প্রোগ্রামিং শিখেছেন বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। এইচটিএমএল প্লাটফর্মে কোডিং করে প্রথম লিখেছেন ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’।

নতুন প্রজন্মকে আবশ্যিক ভাবে প্রোগ্রামিং শেখানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন,বিশ্লেষণী ও উদ্ভাবনী মেধা ছাড়া আগামী পৃথিবীতে ভালো করা যাবে না। প্রোগ্রামিং শিখে আজকের একজন ট্রাক চালকের সন্তান প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে কোডিং করে চালক বিহীন গাড়ি চালাবে।

বক্তব্যে আইসিটি বিভাগের প্রোগ্রামাররা কোডিং করে `সুরক্ষা ডট গভ’ তৈরি করে কীভাবে দেশের  শত কোটি টাকা বাঁচিয়েছে সেই কথাও তুলে ধরে জানান, তাদের মাধ্যমেই শিগগিরি চালু হবে কোভিড ভ্যাকসিন পাসপোর্ট।

বিডিওএসএন সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসানের সঞ্চালানায় ন্যাশনাল হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

বক্তব্যে  জাতীয় ভাবে হাইস্কুলে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ভবিষ্যতের বাংলাদেশে পলকের নাম লেখা থাকবে বলে মন্তব্য করেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল। আর জিপি-এর প্রতি গুরুত্ব না দিয়ে প্রোগ্রামিং শিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্লেষণী মানসিকতার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে শেখালেই সন্তানের ভবিষ্যত উজ্জ্বল হবে বলে মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব।