• শুক্রবার   ০৭ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৪ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

যৌতুক না দেওয়ায় স্ত্রীর মাথায় দায়ের কোপ

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০২১  

ঢাকার ধামরাইয়ে দাবিকৃত যৌতুকে টাকা না দিতে পারায় স্ত্রীকে মারপিট ও মাথায় দায়ের কোপ বসিয়ে দেন পাষন্ড স্বামী। এ ঘটনায় স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছে ভুক্তভোগী স্ত্রী সামসুন নাহার। ঘটনাটি ঘটেছে পৌরসভার আইঙ্গন মহল্লায় বৃহস্পতিবার রাতে। 

ভুক্তভোগী ও তার স্বজনরা জানান, নয় বছর আগে উপজেলার দুনি গ্রামের জুলহাস উদ্দিনের মেয়ে সামসুন নাহারকে বিয়ে করেন ধামরাই পৌরসভার আইঙ্গন মহল্লার হাসান আলীর ছেলে মনোয়ার হোসেন। তাদের দাম্পত্য জীবনে এক ছেলে ও এক মেয়ে জন্ম গ্রহণ করে। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে তেমন একটা মনোমানিল্য না থাকলেও গত পাঁচ বছর ধরে শ্বশুরের কাছে পাঁচ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছে মনোয়ার হোসেন। এরমধ্যে কিছু টাকা যৌতুকও দিয়েছে শ্বশুর জুলহাস উদ্দিন। কিন্তু এক কালীন পাঁচ লাখ টাকা না দিলে সামসুন নাহারকে তালাক দেওয়ার হুমকি দেন মনোয়ার হোসেন।  

এ নিয়ে প্রায়ই সামসুন নাহারকে মারপিট করতো। গলা টিপে ধরতো। তার ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করতো। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার রাতে সামসুন নাহারকে বেদম মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নিলাফুলা জখম করে। এক পর্যায়ে তার মাথায় বটিদা দিয়ে কোপ দেন মনোয়ার। এতে অজ্ঞান হয়ে পড়ে সামসুন নাহার। প্রচার রক্তক্ষরণ হয়। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। 

এ ঘটনায় গতকাল ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী সামসুন নাহার। অভিযুক্ত মনোয়ার হোসেনের মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।