• শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৭

  • || ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১০৬

‘রক্ত দিয়ে হলেও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে’

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৩ ডিসেম্বর ২০২০  

রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করতেই বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করছে একটি মহল। এমন অভিযোগ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বাস্তবায়ন পরিষদের। 

বৃহস্পতিবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, রক্ত দিয়ে হলেও বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য যথাসময়ে স্থাপন করা হবে। 

রাজধানীর দোলাইপাড় চৌরাস্তায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়ার পর থেকেই তার বিরোধিতা করে রাজপথে নামার হুমকি দিয়ে আসছে একটি গোষ্ঠী।

এর বিরোধিতার প্রতিবাদে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে করে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বাস্তবায়ন পরিষদ। বলা হয়, মূর্তি ও ভাস্কর্য এক নয় ৷ যারা ভাস্কর্যের বিরোধিতা করছে তারা স্বাধীনতাবিরোধী।

বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য বাস্তবায়ন পরিষদের আহ্বায়ক আওলাদ হোসেন বলেন, ‘বুকের রক্ত দিয়ে হলেও আমরা বঙ্গবন্ধুকে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে ভাস্কর্যের স্থাপনের প্রকল্প নেওয়া হয়েছে সেটা যথাসময়ে যথাস্থানে হবেই হবে ইনশাল্লাহ।’

এদিকে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা বলেন, অশুভ উদ্দেশ্য হাসিলেই বিরোধিতা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতির রাশেদ খান মেনন বলেন, 'অগণতান্ত্রিক শক্তিরা সব সময় আমাদের ধর্মকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে। পাকিস্তান আমলে সব সময় আমরা দেখেছি এবং এখনও দেখছি।'

ধানমন্ডিতে এক অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ভাস্কর্য নিয়ে যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে তারাই মুক্তিযুদ্ধের সময় ধর্মের অপব্যাখা দিয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ইসলামের অপব্যাখ্যা বিভিন্ন সময় হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময় অপব্যাখ্যা হয়েছে, 'পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করা হারাম, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যারা লড়াই করে তারা কাফের'। ব্রিটিশ শাসনের শুরুতে অপব্যাখ্যা হয়েছে। সময়ে সময়ে নানা অপব্যাখ্যা হয়েছে। যারা এগুলো করছেন তাদেরকে আমি বিনীতভাবে অনুরোধ জানাব, দয়া করে এই বিভ্রান্তি ছড়াবেন না।'

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতার প্রতিবাদে গেল কয়েকদিন ধরেই নানা কর্মসূচি করে আসছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর