• বৃহস্পতিবার   ১৫ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ রমজান ১৪৪২

লেডি বাইকার সুজাতার রেকর্ড

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

নাম তার সুজাতা। সবাই তাকে চেনেন লেডি বাইকার হিসেবে। মোটরবাইক চালিয়ে একের পর এক রেকর্ড গড়ছেন তিনি। এবার তিনি মাত্র ১৫ দিনে বাইক নিয়ে ঘুরে আসলেন বাংলাদেশের ৬৪ জেলা। এ সময় তার সঙ্গী হয় প্রিয় পোষা কুকুর জিমি। বাইক চালিয়ে একা কোনো নারীর ৬৪ জেলা ভ্রমণ এটাই প্রথম।

এর আগে বাইক চালিয়ে মাত্র ২৮ ঘণ্টায় টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পৌঁছে রেকর্ড গড়েন তিনি।

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার উত্তর জামসা নয়পাড়া গ্রামের মেয়ে সুজাতা। ঢাকার প্রাইম ইউনিভার্সিটিতে আইন বিষয়ে লেখাপড়া করছেন। মাঝে পুলিশ সদস্য হিসেবে চাকরি নিয়েছিলেন। কিন্তু মা খুশি না হওয়ায়, এক বছরের মাথায় স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে দিয়ে বাড়িতে চলে আসেন।

সাহসী নারী সুজাতার মোটরসাইকেল চালানো নেশার মতো। সরকারি চাকরিজীবী মা মোটরসাইকেল চালিয়ে অফিস করতেন। প্রাইমারি স্কুলে পড়া অবস্থাতেই মায়ের কাছ থেকে বাইক চালানো শেখেন সুজাতা। তারপর পার হয়েছে ুএক যুগ। কিন্তু বাইক নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর নেশা কমেনি এতটুকুও।

 ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাবের সাভার জোনের একজন সক্রিয় সদস্য সুজাতা।

গত ২০ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি পযর্ন্ত মাত্র ১৫ দিনে বাইক চালিয়ে তিনি দেশের ৬৪ জেলা ভ্রমণ করে ফিরেছেন। এ সময় তার সঙ্গী ছিলো পোষা কুকুর জিমি। তাকে কখনো পেছনে কখনো সামনেু বসিয়ে বাইক চালিয়েছেন সুজাতা।

সুজাতা জানান, প্রথম দিন সাড়ে ৫০০ কিলোমিটার মোটরসাইকেল চালিয়েছেন। ৬৪ জেলা ভ্রমণের সময় প্রতিটি জেলার সার্কিট হাউসের সামনে ছবি তুলেছেন। দর্শনীয় স্থানে ঘুরেছেন। বিভিন্ন জেলায় পৌঁছে ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে স্বাক্ষাত করেছেন।

সুজাতা বলেন, ৬৪ জেলায় ভ্রমণ এক রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা তার। পার্বত্য অঞ্চলের পাহাড়ি পথে চলতে গিয়ে অনেক চ্যালেঞ্জকেই মোকাবিলা করতে হয়েছে। রাস্তায় থামলেই উৎসুক জনতা ঘিরে ধরত তাকে। একজন নারী মোটরসাইকেল চালিয়ে দেশ ভ্রমণ করছেন শুনেই তারা অবাক হতেন। অনেকে ‘দুরন্ত সাহস’ বলেও মন্তব্য করেছেন।

এর আগে গত ২৬ অক্টোবর সুজাতা বাইক চালিয়ে মাত্র ২৮ ঘণ্টায় টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ায় যাওয়ার রেকর্ড গড়েন। কোনো নারীর একা বাইক চালিয়ে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া যাওয়াও এটাই প্রথম ছিলো।

তারআগে ৪ জন নারী গ্রুপ ট্যুরে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া বাইক চালিয়ে গিয়েছিলেন। সুজাতা সেই রেকর্ড ভাঙেন।

সুজাতা জানান, ছোটবেলা থেকেই বাইক চালাই। বাইকের প্রতি অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে। তাই ঘুরে বেড়াই। ৪ বছরের প্রিয় কুকুর জেমিকে ৬৪ জেলা দেখাতে পেরে নিজের কাছেও ভালো লাগছে। ইচ্ছা আছে বাইক চালিয়ে বিভিন্ন দেশ ভ্রমণেরও।