• মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১০৩

হিজাবকে হ্যাটের সঙ্গে তুলনা, ক্ষমা চাইলেন কানাডীয় বিচারক

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

আদালতে শুনানিতে অংশ নিতে আসা এক মুসলিম নারীর হিজাবকে আদালত কক্ষে হ্যাট ও সানগ্লাস পরে থাকার সঙ্গে তুলনা করার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন কানাডার এক বিচারক।

মঙ্গলবার পাঁচ বছর আগে কানাডার কুইবেক শহরের আদালতে ঘটা সেই ঘটনার জন্য বিচারকের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সেই মুসলিম নারী রানিয়া এল-আলৌওল।

২০১৫ সালে নিজের জব্দ হওয়া গাড়ির মামলার শুনানিতে অংশ নিতে আদালতে যান রানিয়া। কিন্তু আদালতের বিচারক এলিয়ানা মারেঙ্গো রানিয়ার পরিহীত হিজাবকে আদালত কক্ষে হ্যাট ও সানগ্লাস পরে থাকার সঙ্গে তুলনা করে তা খুলে ফেলার নির্দেশ দেন। অন্যথায় তার কথা শোনা হবে না বলে জানান তিন।

বিচারকের এ নির্দেশের পর নিজের পরনে থাকা হিজাব না খুলে আদালত কক্ষ থেকে বেরিয়ে যান রানিয়া।

এ ঘটনা সেসময় ব্যাপক আলোচনা ও বিতর্কের সৃষ্টি করে। একপর্যায়ে সেই মামলা বাতিল হয়ে গেলে নিজের গাড়ি ফেরত পান রানিয়া। কিন্তু আদালত কক্ষে হিজাব খুলতে বলার নির্দেশ দেয়া নিয়ে বিতর্ক রয়েই যায়।

সেই বিতর্ককে কেন্দ্র করে ২০১৮ সালে বিচার চেয়ে আদালতে আবেদন করেন রানিয়া। তবে আদালত এ ঘটনায় শাস্তিমূলক কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে বিচারক এলিয়ানা মারেঙ্গো’কে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেয়।

বিচারকের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা চাওয়ার ঘটনার প্রেক্ষিতে সংবাদমাধ্যমকে রানিয়া বলেন, ‘আমি সেই বিচারককে ক্ষমা করে দিয়েছি। কারণ আমার ধর্ম তাকে ক্ষমা করে দেয়ার শিক্ষা দেয়।’

সূত্র: আনাদলু এজেন্সি

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর