• বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৮

  • || ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ঘিওরে সেই নবজাতকের মা আটক, বেরিয়ে এলো ভিন্ন গল্প

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১  

মানিকগঞ্জের ঘিওরে পুলিশের অনুসন্ধানে সন্ধান মিলেছে পুটিয়াজানি এলাকায় কথিত ‘রাতে রাস্তার পাশে ফেলে যাওয়া’ নবজাতকের মায়ের। বুধবার সন্ধ্যার দিকে পুলিশ ওই মাকে আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রাস্তায় ফেলে দেয়ার কথা স্বীকার করেছে ৪৫ বছর বয়সী স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারী। অসুস্থ থাকায় পরে তাকে ঘিওর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারী পুটিয়াজানি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। পাশের উপজেলা দৌলতপুরে তার বাড়ি। অবৈধ শারীরিক সম্পর্কে গর্ভবতী হন তিনি। সন্তান ভূমিষ্ট হওয়ার পর  লোকলজ্জার ভয়ে পাশের বাড়ির বাসনা (৩৫) নামের এক নারীর কাছে লালন পালনের জন্য নবজাতককে তুলে দেন। কিন্তু শিশুটির পরিচয় কী দিবে- এমন শঙ্কায় নবজাতককে রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছে বলে একটি নাটক সাজানো হয়। কিন্তু পুলিশ এরই মধ্যে মূল নাটকের রহস্য উদঘাটন করে ফেলে।

এ বিষয়ে ঘিওর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লব বলেন, পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে রাস্তায় ফেলে যাওয়া সেই নবজাতক শিশুর মায়ের সন্ধান পেয়েছে। ওই নারী স্বামী পরিত্যক্তা ও অবৈধ গর্ভপাত হাওয়ায় ওই শিশুটিকে নিয়ে একটি নাটক সাজিয়ে বাসনা নামের অন্য এক নারী রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছে বলে এলাকাবাসীকে জানায়।
 
তিনি আরো জানান, আটক ওই নারীকে শারীরিক সমস্যার কারণে আপাতত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। একইসাথে গর্ভপাতের সাথে জড়িত আরো দু'জন নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এখন হাসপাতলে ভর্তি থাকা নবজাতকের সাথেই তার মাকে রাখা হয়েছে। সুস্থ হওয়ার পর এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।