• রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৮

  • || ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

ডুবে যাওয়া ট্রাক উদ্ধার হলেও দুশ্চিন্তায় মালিকরা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৩০ অক্টোবর ২০২১  

দশ বছর মালোয়েশিয়াতে ছিলাম সেখান থেকে যে টাকা রোজগার করছিলাম সেই টাকা আর বেশ কিছু টাকা ঋণ করে এই ট্রাকটি কিনছিলাম, কিন্তু ট্রাকের যে পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তাতে আমার তো সব শেষ।  নদী থেকে ডুবে যাওয়া ট্রাক তোলার পর সেটি দেখে একথা বলেন মাগুরা জেলার ট্রাক মালিক সাইদুজ্জামান।

 
তিনি বলেন, এই ট্রাক কিভাবে মেরামত করবো। এ অবস্থায় সরকারের কাছে আবেদন আমাদের যদি কিছু ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হতো।  

গত বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল পৌনে ১০টার দিকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার পাঁচ নম্বর ঘাটে আমানত শাহ নামে রো রো ফেরি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ফেরিটি কাত হয়ে ডুবে যাওয়ার আগ মুহূর্তে তিনটি ট্রাক নামতে পারলেও বাকি ১৪টি ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান পদ্মা নদীতে তলিয়ে যায়।

ডুবে যাওয়া আরও এক ট্রাক মালিক সোয়েব বলেন, বাড়ির জমি ব্যাংকে মর্টগেজ দিয়ে টাকা নিছি তার পর সেই টাকা দিয়ে ট্রাক কিনেছি। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে মাসে কয়েক বার পার হতে হয় তবে কখনো এ ধরনের দুর্ঘটনার মধ্যে পড়তে হয়নি। গত বুধবার (২৭ অক্টোবর) পটুয়াখালী সেনা কল্যাণের মালামাল নিয়ে ঢাকায় যাচ্ছিলো ট্রাকটি। উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা'র মাধ্যমে পদ্মা নদীতে ডুবে যাওয়া ফেরি আমানত শাহ'র ভেতর থেকে ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়েছে।  

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক বলেন, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ডুবে যাওয়া ফেরির ভেতরে থাকা যানবাহনগুলো উদ্ধার করা হচ্ছে