• রোববার   ২৩ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১০ ১৪২৮

  • || ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কিশোরীকে কাজী অফিসের কথা বলে ফ্ল্যাটে নিয়ে ধর্ষণ

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০২১  

অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ের জন্য কাজী অফিসে নেওয়ার কথা বলে একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আশরাফুল ইসলাম আরিফ (২২) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। সাভারের আশুলিয়ায় ওই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আরিফকে আটক করেছে র‌্যাব-৪।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) বিকেলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৪ এর সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে, সকালে আশুলিয়ার নতুন বাজার এলাকায়  অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক আশরাফুল ইসলাম আরিফ জামালপুর জেলার বাসিন্দা।  

র‌্যাব-৪ জানায়, গত ১৪ এপ্রিল আশুলিয়ার নতুন বাজার এলাকায় এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা ১৬ নভেম্বর র‌্যাবের কাছে একটি অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাবের একটি গোয়েন্দা দল ধর্ষককে গ্রেফতারে ছায়া তদন্ত শুরু করে। গোয়েন্দা তথ্য ও স্থানীয় সোর্সের মাধ্যমে জানা যায় যে আরিফ আশুলিয়া থানাধীন এলাকায় অবস্থান করছেন। পরে এ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব সকালে আশুলিয়ার নতুন বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে।

ভুক্তভোগীর বাবার অভিযোগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মেয়েটি আশুলিয়ার একটি স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। তার সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আশরাফুল ইসলাম আরিফের (২৬) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আরিফ ভিকটিমকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ১৪ এপ্রিল কাজী অফিসে নেওয়ার কথা বলে তার সঙ্গে নিয়ে যান। পরে তিনি কাজী অফিসে না নিয়ে আশুলিয়া বাইপাইলের কাছে নতুন বাজার এলাকার একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। বিয়ে না করে ভুক্তভোগীকে আবার বাসায় পাঠিয়ে দেন। আরিফ পরে বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ওই একই ফ্ল্যাটে নিয়ে মেয়েটিকে আরও তিনবার ধর্ষণ করেন।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৪ সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরিফ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।