• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

লালবাগ কেল্লায় দর্শনার্থীর ভিড়

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০২২  

ঈদুল আজহার চতুর্থ দিনেও পুরান ঢাকার লালবাগ কেল্লায় দেখা গেছে দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধসহ সব বয়সী মানুষ এসেছেন ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে। কেউ ছেলে-মেয়ে, কেউ স্ত্রী কিংবা বন্ধুবান্ধবসহ পরিবারের লোকজন নিয়ে ঘুরছেন। বুধবার (১৩ জুলাই) বিকেলে লালবাগ কেল্লায় গিয়ে এমনটি দেখা যায়। সকাল ১০টা থেকে কেল্লা খুললেও বিকেলে ছিল দর্শনার্থীদের চাপ বেশি। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকে লালবাগ কেল্লা।

ভেতরে গিয়ে দেখা যায়, কেউ ঘুরে বেড়াচ্ছেন, আবার কেউ তুলছেন ছবি। কেউ ইতিহাসের সঙ্গে পরিচিত হচ্ছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঈদের ছুটি কিংবা বিশেষ দিনে লালবাগ কেল্লায় প্রতিদিন ১০ থেকে ১২ হাজার দর্শনার্থী আসে। রাজধানীর পোস্তা থেকে ছেলেমেয়েসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে আসা শাহিনুর আক্তার জাগো নিউজকে বলেন, প্রায়ই বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে যাই। ঈদের সময়ও আসি ঘুরতে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার কামরাঙ্গীরচর থেকে আসা মো. শামীম শেখ বলেন, পুরান ঢাকায় থাকলেও এবার এই প্রথম লালবাগ কেল্লা দেখতে আসলাম। ঈদের ছুটিতে ঘুরে বেড়ানো, একই সঙ্গে ইতিহাস-ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার জন্য এখানে এসেছি। যাত্রাবাড়ী থেকে আসা মো. আল-আমিন বলেন, ঢাকায় সময় ব্যয় করার জন্য খোলা জায়গা তেমন নেই। তাই ঈদের ছুটিতে লালবাগ কেল্লায় আসা।

এদিকে প্রচণ্ড গরমে আবার অনেকে কাহিল। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘুরতে আসা এমনই একজন নাঈমা ইসলাম রুমা। লালবাগ কেল্লায় দর্শনার্থীর ভিড় তিনি বলেন, অনেক বড় জায়গা। রোদের মধ্যে বাচ্চাদের নিয়ে হাটা একটু কষ্টকর। তাই বসে বিশ্রাম নিচ্ছি। রাজধানীর জিঞ্জিরা থেকে পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা মো. জাবেদ বলেন, রোদে আধা ঘণ্টা ঘোরার পরই অনেকটা ক্লান্ত হয়ে পড়ি। তাই স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে ছায়ার মধ্যে বসে আছি। লালবাগ কেল্লার কর্মকর্তারা জানান, ঈদ উপলক্ষে দর্শনার্থীদের চাপ বেশি থাকে। বিকেলে সেই চাপটা বেশি হয়। বাড়তি নিরাপত্তার জন্য পুলিশসহ পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।