• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাবিতে নিয়মবহির্ভূতভাবে গবেষণা ভাতা প্রদান, ক্ষতি ৯ কোটি টাকা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষকদের গবেষণা প্রকল্পে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাজেট ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) থেকে সম্মানি দেয়া হয়। এর পরও নিয়মবহির্ভূতভাবে শিক্ষকদের গবেষণা ভাতা ও বই ভাতা প্রদান করা হয়। এতে চার বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৯ কোটি ১২ লাখ ৯৮ হাজার ৫৭৬ টাকা ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে গবেষণা ভাতা বাবদ ৮ কোটি ৬১ লাখ ৩০ হাজার ৫৭৬ টাকা এবং বই ভাতা বাবদ ৫১ লাখ ৬৮ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

সম্প্রতি মহাহিসাব নিয়ন্ত্রক ও নিরীক্ষকের কার্যালয়ের অধীন শিক্ষা অডিট অধিদপ্তরের উপপরিচালক শাকিলা জামান কর্তৃক মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব বরাবর প্রেরিত ২০১৭-১৮ থেকে ২০২০-২১ অর্থবছরের অডিট রিপোর্ট থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। বিষয়টিকে গুরুতর আর্থিক অনিয়ম (এসএফআই) হিসেবেও চিহ্নিত করেছে সংস্থাটি।

অডিট রিপোর্টের এক নম্বর অনুচ্ছেদে নিরীক্ষাকালে বেতন বিল পর্যালোচনার বরাত দিয়ে অডিট টিমের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, পাবলিক বডি/স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী শিক্ষকদের গবেষণা ভাতা প্রদানের সুযোগ নেই। নিয়মবহির্ভূতভাবে মাসিক বেতন বিলে প্রতি মাসে ৩ হাজার টাকা হারে গবেষণা ভাতা প্রদান করায় চার বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ কোটি ৬১ লাখ ৩০ হাজার ৫৭৬ টাকা ক্ষতি হয়েছে।

অন্যদিকে নিরীক্ষা দলকে দেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জবাবে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের সার্বক্ষণিক গবেষণা কার্যক্রম তরান্বিত করার জন্য গবেষণা ভাতা প্রদান করা হয়। বিষয়টি অনুসরণ করে এ বিশ্ববিদ্যালয়েও গবেষণা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য ২০১৬ সালের ৮ আগস্ট সিন্ডিকেটের বিশেষ সভায় গবেষণা ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়।

তবে শিক্ষকদের ইউজিসি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে গবেষণা প্রকল্পের বিপরীতে সম্মানি প্রদান, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন না নেয়া ও সিন্ডিকেটের এ ব্যাপারে ক্ষমতা না থাকার কারণ দেখিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্তব্য আপত্তি নিষ্পত্তির জন্য সহায়ক নয় বলে জানিয়েছে অডিট টিম।

আপত্তির ব্যাপারে কোনো মন্তব্য না করলেও জাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ শিক্ষা ও গবেষণা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের জন্য শিক্ষকদের জন্য গবেষণা ভাতার পাশাপাশি পরিবহন ভাতা চালুর দাবি জানান। এছাড়া বই ভাতাসহ আরো কিছু ভাতাকে যুগোপযোগী করার দাবি জানান তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. নূরুল আলম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টি নিয়ে সমন্বয় করা হবে।