• বৃহস্পতিবার   ০৬ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২১ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সাটুরিয়ায় মরা গরুর মাংস বিক্রির অভিযোগে দুই ব্যবসায়ীকে কারাদন্ড

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০২২  

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় মরা গরুর মাংস বিক্রি করার অভিযোগে দুই ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তিনমাসের কারাদন্ড ও ৫ শত টাকা অর্থদন্ড দিয়েছে। মাংস ব্যবসায়ী মো. ইউনুছ আলী ও সাগর আলীকে সাটুরিয়া থানা পুলিশ মানিকগঞ্জ জেল হাজতে পাঠিয়েছে ।

সাটুরিয়া থানা সত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতে জালশুকা গ্রামের সুরুজ মিয়ার একটি যাড় গরু ল্যাম্পিং স্কিনে আক্রান্ত হয়। ওই গরু মারা গেলে রাতেই জবাই করে কসাই মো. ইউনুছ আলী ও সাগর আলীর কাছে প্রায় ২ লাখ টাকার মূল্যের গরু ২৭ হাজার টাকা বিক্রি করেন। স্থানীয়দের অভিযোগ এরা মাঝে মধ্যে সাটুরিয়া বাজারসহ বিভিন্ন হাট বাজারে মরা ও অসুস্থ্য গরুর মাংস বিক্রি করে থাকেন।

মানিকগঞ্জের কসাই ইউনুছ আলী ও সাটুরিয়ার রাইল্যা গ্রামের সাগর আলী ওই মরা গরুর মাংস বাজারজাত করার জন্য একটি পিক্যাভ ভ্যানে নিয়ে আসার সময় চাঁচীতারা নামক স্থানে স্থানীয় মানুষ আটক করে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিতি হয়ে মরা গরুর মাংসসহ দুই কসাইকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

শনিবার বেলা ১২ টার সময় পুলিশ সাটুরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তা খায়রুন্নাহার ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে দুই কসাইকে মরা মাংস বিক্রি করার অপরাধে তিনমাসের কারাদন্ড ও ৫ শত টাকা জরিমানা করেন। পরে জব্দকৃত ওই মরা গরুর মাংস প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তার অফিসের ভেতর পুতে রাখা হয়। কসাই সাগর আলী ও ইউনুছ আলী বলেন, গরুটি মরেনি। অসুস্থ্য ছিল। পরে গরুর মালিক জবাই করে আমাদের কাছে বিক্রি করে।