• মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২১ ১৪২৯

  • || ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

অকৃতজ্ঞ দুই ছেলেকে মা বুঝিয়ে দিলেন ‘ভালোবাসা কারে কয়

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০২২  

হাজারো দুঃখ পেলেও সন্তানকে দূরে সরিয়ে দিতে পারেন না মা। বুকে জড়িয়ে আগলে রাখতে চান পরম মমতায়। আয়েশা বেগম (৮৫) সেটাই প্রমাণ করলেন। যে সন্তানরা বৃদ্ধ মাকে চরম অবহেলায় গোয়ালঘরে ফেলে রেখে গ্রেপ্তার হয়েছিল, তাদেরকেই জামিনে ছাড়িয়ে আনলেন আয়েশা বেগম।

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার মধ্য চারিগ্রামের মৃত হজরত আলীর স্ত্রী আয়েশা বেগম। বয়স ৮৫ বছর। তিন ছেলে মো. কলম, মোস্তফা ও চানু মিয়া। চানু মিয়া প্রবাসী। অন্য দুই ভাই কৃষিকাজ করেন। পৈতৃক বাড়িতে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকেন। মা আয়েশা বেগমও থাকতেন। কিন্তু ঘরে জায়গার অভাবের কথা বলে ছয় মাস আগে মাকে পাঠানো হয় গোয়ালঘরে। সেখানে খাবারও ঠিকমতো দেওয়া হতো না।

বিষয়টি এলাকার লোকজনের মাধ্যমে জানতে পারেন মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খান। তাৎক্ষণিক তার নির্দেশে সিংগাইর পুলিশ গত রবিবার আয়েশা বেগমকে গোয়ালঘর থেকে উদ্ধার করে। আটক করে দুই ভাই কলম ও মোস্তফা এবং চানু মিয়ার স্ত্রী মর্জিনাকে।

সিংগাইর থানার পুলিশ পরিদর্শক আনিসুর রহমান জানান, পরদিন সোমবার ভরণপোষণ না দেওয়ার অভিযোগে আয়েশা বেগম তার দুই ছেলে কলম ও মোস্তফা এবং চানুর স্ত্রী মর্জিনার বিরুদ্ধে মামলা করেন। আটককৃতদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে গতকাল দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। কিন্তু আয়েশা বেগম তাঁর সন্তানদের জামিন চেয়ে আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।