• রোববার ২৬ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪৩১

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্বের খোঁজে তারেকের সিন্ডিকেট!

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৯  

পূর্ব কোন নির্দেশনা ছাড়াই হঠাৎ ছাত্রদলের কমিটি ভেঙে দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। সাংগঠনিক ভিত্তি মজবুত করতে ছাত্রদল পুনর্গঠন করা হবে বলে জানানো হয়েছে তারেকের পক্ষ থেকে। তবে নতুন কমিটি গঠন করার উদ্দেশ্য পদ বাণিজ্য বলে দলের মধ্যে একটি গুঞ্জন চাউর হয়েছে।

এদিকে ছাত্রদলের একাধিক দায়িত্বশীল নেতার বরাতে জানা গেছে, ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব খোঁজার জন্য লন্ডন থেকে তারেক রহমান যাদের দায়িত্ব দিয়েছেন তারা প্রত্যেকেই দলে বিতর্কিত। এসব নেতা জোট সরকারের সময় বিভিন্ন দুর্নীতির সঙ্গে তারা জড়িত ছিলেন বলেও গুঞ্জন রয়েছে। ফলে ছাত্রদলকে গতিশীল করার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব বাছাই করতে তারা স্বচ্ছ থাকবেন- এই বিশ্বাস দলের অধিকাংশ কর্মীর মধ্যেই নেই।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রদলের নতুন কমিটিতে বাদ পড়ার আশঙ্কায় থাকা একজন নেতা বলেন, নতুন নেতৃত্ব খোঁজার জন্য যাদের প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হয়েছে তাদেরকে তারেক রহমান বিশেষ বার্তা দিয়ে এ দায়িত্ব দিয়েছেন- এ তথ্য আমরা পেয়েছি। ছাত্রদলের ফান্ড তৈরির নাম করে পদ প্রাপ্ত নেতাদের কাছ থেকে একটি নির্দিষ্ট অংকের অর্থ নেয়া হবে বলেও নানা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে।

এই বিষয়ে লন্ডন বিএনপির সভাপতি আবদুল মালেকের ঘনিষ্ঠ একজন নেতার কাছে এ অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। তিনি কিছুটা কৌশলী ভাষায় বলেন, নেতৃত্ব বাছাই করা কমিটিতে যারা দায়িত্ব পেয়েছেন তারা তারেক রহমানের আস্থাভাজন। তার বিশেষ নির্দেশে বাংলাদেশ ছাত্রদলের নেতৃত্ব বাছাই করবেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। নতুন পদ প্রাপ্ত নেতারা ছাত্রদলকে এগিয়ে নিতে কিছু পরিমাণ অর্থ ডোনেট করবে এটি জেনেছি। এটাকে বাণিজ্য বলা ঠিক হবে না। তবে বাংলাদেশ ছাত্রদলের কর্মীদের মধ্যে বিষয়টি যেভাবে ছড়িয়েছে তা ভালো ফলাফল বয়ে আনবে না বলে আমার মনে হয়। এ সম্পর্কে তাদের ব্রিফ করা উচিৎ। ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্বের খোঁজে গঠিত কমিটির বিতর্কিত সদস্যদের বাদ দিয়ে তুলনামূলক পরিচ্ছন্ন নেতাদের দায়িত্ব দিলে চলমান বিতর্ক এড়ানো যাবে বলে আমি মনে করি।

দলীয় সূত্র মতে, ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব খোঁজ করার জন্য গঠিত কমিটির সদস্য হিসেবে আছেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশারফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম, নির্বাহী সদস্য রাজিব আহসান।

এছাড়া, বাছাই কমিটিতে আছেন- বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রশিদ হাবিব ও নির্বাহী কমিটির সদস্য আকরামুল হাসান।

বাছাইয়ের পর সমস্যাগুলো চিহ্নিত ও সমাধান করতে কাজ করবে আপিল কমিটি। এই কমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান।