• রোববার   ২২ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৯

  • || ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

নির্বাচনে বিএনপির পরাজয় সুনিশ্চিত: তোফায়েল আহমেদ

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮  

বাণিজ্যমন্ত্রী ও ভোলা সদর আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, সারাদেশে ২০০১ সালের পরে বিএনপি সীমাহীন অন্যায়-অত্যাচার করেছে, এবারের নির্বাচনে তাদের পরাজয় সুনিশ্চিত।

তাদের ক্ষমতায় আসার কোনো সম্ভাবনা নেই। তারা ঘরে বসে রয়েছে, ঘরেই বসে থাকবে। বের হওয়ার মতো সাহস তাদের নেই, যোগ করেন তোফায়েল আহমেদ।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ভোলার বোরহানউদ্দিনে ভোলা-২ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলী আজম মুকুলের নির্বাচনী পথসভায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ড. কামাল হোসেন দল ও আদর্শ ত্যাগ করে স্বাধীনতাবিরোধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। বিএনপির কোনো নেতা নেই। ড. কামাল হোসেন এখন বিএনপির ভাড়াটিয়া নেতা। তার আচার-আচারণ কুৎসিত হয়ে গেছে।

মন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল এবং পৃথীবির মধ্যে একটি মর্যাদাশালী দেশ। তরুণ প্রজম্মের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ হয়েছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হয়। বিএনপি এলে ধ্বংস হবে।

এ সময় মন্ত্রী বিএনপি নেতাদের সমালোচনা করে বলেন, খালেদা জিয়া দুর্নীতিবাজ, তারেক জিয়া খুনি। সেই খুনিদের সঙ্গে ধানের শীষে ড. কামাল। মানুষ তাদের পছন্দ করে না।

স্থানীয় উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, সিঙ্গাপুরের আদলে ভোলাকে সাজানো হবে। এখানে গ্যাস রয়েছে, গ্যাস ভিত্তিক শিল্প কারখানা হবে। কর্মসংস্থান হবে শিক্ষিত তরুণদের। বিগত দিনে বিএনপির আমলে নদী ভাঙ্গন রোধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। আমরাই জেলার সাত উপজেলাকে নদী ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করেছি, ভোলাতে এখন নৌকার গণজোয়ার, নির্বাচনে চারটি আসনেই নৌকা মার্কা বিজয়ী হবে।

উপজেলা সদরের কলেজ রোড এলাকায় অনুষ্ঠিত পথসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভোলা-২ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলী আজম মুকুল, বেরাহনউদ্দিন পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জসীম উদ্দিন হায়দার ও ডা. মুন্নি।বাণিজ্যমন্ত্রী ও ভোলা সদর আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, সারাদেশে ২০০১ সালের পরে বিএনপি সীমাহীন অন্যায়-অত্যাচার করেছে, এবারের নির্বাচনে তাদের পরাজয় সুনিশ্চিত।

তাদের ক্ষমতায় আসার কোনো সম্ভাবনা নেই। তারা ঘরে বসে রয়েছে, ঘরেই বসে থাকবে। বের হওয়ার মতো সাহস তাদের নেই, যোগ করেন তোফায়েল আহমেদ।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ভোলার বোরহানউদ্দিনে ভোলা-২ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলী আজম মুকুলের নির্বাচনী পথসভায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ড. কামাল হোসেন দল ও আদর্শ ত্যাগ করে স্বাধীনতাবিরোধী ও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। বিএনপির কোনো নেতা নেই। ড. কামাল হোসেন এখন বিএনপির ভাড়াটিয়া নেতা। তার আচার-আচারণ কুৎসিত হয়ে গেছে।

মন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল এবং পৃথীবির মধ্যে একটি মর্যাদাশালী দেশ। তরুণ প্রজম্মের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ হয়েছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হয়। বিএনপি এলে ধ্বংস হবে।

এ সময় মন্ত্রী বিএনপি নেতাদের সমালোচনা করে বলেন, খালেদা জিয়া দুর্নীতিবাজ, তারেক জিয়া খুনি। সেই খুনিদের সঙ্গে ধানের শীষে ড. কামাল। মানুষ তাদের পছন্দ করে না।

স্থানীয় উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, সিঙ্গাপুরের আদলে ভোলাকে সাজানো হবে। এখানে গ্যাস রয়েছে, গ্যাস ভিত্তিক শিল্প কারখানা হবে। কর্মসংস্থান হবে শিক্ষিত তরুণদের। বিগত দিনে বিএনপির আমলে নদী ভাঙ্গন রোধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। আমরাই জেলার সাত উপজেলাকে নদী ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করেছি, ভোলাতে এখন নৌকার গণজোয়ার, নির্বাচনে চারটি আসনেই নৌকা মার্কা বিজয়ী হবে।

উপজেলা সদরের কলেজ রোড এলাকায় অনুষ্ঠিত পথসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভোলা-২ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলী আজম মুকুল, বেরাহনউদ্দিন পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জসীম উদ্দিন হায়দার ও ডা. মুন্নি।