• বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ২ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

দোহার পৌরসভা নির্বাচন: নতুন ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০২২  

২০০০ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর প্রথমবারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরপর সীমানা জটিলতায় ঝুলে যায় নির্বাচন। দীর্ঘ ২২ বছর পর ২৭ জুলাই বুধবার দোহার পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আর এ নির্বাচনকে সামনে রেখে নতুন ভোটারদের মধ্যে দেখা গেছে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা। গত ২০ বছর আগে যারা ভোটার হয়েছেন। তারা এবারই প্রথম ভোট দিতে পারছেন। তাই তাদের মনে আনন্দ দেখা গেছে।

অপরদিকে পৌরবাসী সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে নগর পিতা নির্বাচন করবেন। এ পৌরসভায় প্রথমবারের মতো প্রতিটি কেন্দ্রেই ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ, র্যা ব, বিজিবি ও আনসার সদস্যরা মাঠে রয়েছেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে ১ জন করে ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন। ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে মোবাইল টিম, স্ট্রাইকিং ফোর্সসহ প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ, বিজিবি ও র্যা ব  সদস্যরা কর্মরত থাকবেন। এছাড়া আনসার সদস্যরা নিরাপত্তার জন্য মাঠে কাজ করছেন।

দোহার নির্বাচন অফিস জানায়, এবার দোহার পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে ৮ প্রার্থী হলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, মো. আলমাস উদ্দিন,  জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুর রহমান আকন্দ, জামাল উদ্দিন, নুরুল ইসলাম, ফরহাদ হোসেন ও আমজাদ হোসেন। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১২ জন প্রার্থী, সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে ৬২ জন প্রার্থী দোহার পৌরসভার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন।

সব ভোটার যেন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে, কেউ যাতে ভয়ভীতি দেখাতে না পারে, নির্বাচন নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ অবাধ সুষ্ঠু সুন্দর হয়; নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের নিকট এমনটাই আশা করছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

দোহার পৌরসভার নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (রিটার্নিং কর্মকর্তা)  মো. আশ্রাফুল আলম জানান, নির্বাচন কমিশন, স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তারা বেশ তৎপর পৌর নির্বাচনকে ঘিরে। দোহার পৌর নির্বাচন শান্তিপূর্ণ অবাধ সুষ্ঠু করতে, নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সব দপ্তর কাজ করছে।

দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপারসহ পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তা, দোহার থানা পুলিশ, শান্তিপূর্ণ সুন্দর পরিবেশে ভোটারগণ যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সেই লক্ষ্যে কাজ করছেন।