• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শ্রদ্ধাবনত মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত শহীদ বেদী

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২৩  

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে জনতার ঢল নেমেছে। রক্তিম সূর্যোদ্বয়ের সাথে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সৌধপ্রাঙ্গণ উম্মুক্ত করা হলে বাড়তে থাকে সাধারণ মানুষের চাপ। তবে বিগত সময়ে চেয়ে উপস্থিতি ছিল কম।

রবিবার (২৬ মার্চ) সকালে জাতীয় স্মৃতিসৌধে এসে এমন চিত্র দেখা যায়। রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সামাজিক সংগঠন, স্থানীয় ও দেশের দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসা মানুষের ভীড় চোখে পড়ে স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে। ভোরে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে সর্বস্তরের মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে। শহীদ বেদী ভরে ওঠে ফুলে ফুলে। লাল-সবুজের পতাকায় ছেয়ে যায় প্রাঙ্গণ। মানুষের হাতে হাতে ফুল, পরনে ছিলো লাল-সবুজের ছোঁয়া।

এ সময় স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও রাজনৈতিক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয়, প্রেসক্লাব, সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে এবং সব বয়সী মানুষকে স্মৃতিসৌধের বেদীতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে দেখা যায়। এছাড়া একে একে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, গণফোরাম, জাসদ, বাম দলসহ নানা রাজনৈতিক দল বীর শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

জাতির বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছে শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সী মানুষ। শিশুদের মাথায় বাঁধা স্বাধীনতা দিবসের ফিতা, হাতে লাল সবুজের পতাকা। বাবার কোলে করে বীর শহীদের বেদী ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় শিশুরাও। এসেছিলেন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধারাও। সবার চোখে-মুখে ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সোনার বাংলা বিনির্মাণের অবিচল আস্থার ছাপ। স্বাধীনতা দিবসের আনন্দ ও উচ্ছ্বাসে স্মৃতিসৌধকে ঘিরে গোটা সাভার যেন পরিণত হয়েছে উৎসবের নগরীতে।

বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরাও এসেছিলেন। পতাকা হাতে, কেউ মাথায় পরে, সারিবদ্ধভাবে দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করে শহীদ বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।     

গাজীপুর থেকে শ্রদ্ধা জানাতে আসা কবির হোসেন বলেন, আমরা যুদ্ধ করতে পারিনি। কিন্তু যারা যুদ্ধ করেছেন, দিয়েছেন দেশের জন্য প্রাণ তাদের কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করা প্রয়োজন। তাই  শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি। এখানে আমি প্রতিবারই আসি। এদিকে, ঢাকা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে নিরাপত্তার কঠোর ব্যবস্থা। সিসি ক্যামেরাসহ সাদা পোশাকেও পুলিশের নজরদারি রাখা হয়েছে।