• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বিদেশ যাওয়ার ছুটি নিয়ে যা বললেন ডিবি প্রধান হারুন

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২৩  

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান হারুন অর রশীদ ছুটি নিয়ে সস্ত্রীক বিদেশ যাচ্ছেন। বিষয়টি প্রথমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা কথা উঠছে। অবশেষে ছুটির বিষয়টি খোলাসা করলেন ডিবি প্রধান।

হারুন অর রশীদ বলেছেন, ‘সরকারি কর্মকর্তা, পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে বিভিন্ন সময় গুজব ছড়ানো হয়। আমাকে নিয়েও তাই করা হচ্ছে। আমাদের মনোবল ভাঙার জন্য এগুলো করা হয়। তবে আমাদের মনোবল ভাঙবে না। আমি ছুটি গোপনে নিচ্ছি না। এটা সবাই জানে। বিভিন্ন স্তর পার হয়ে ছুটি পাস হয়।’ 

৩ জুন থেকে হারুন অর রশীদ ১৩ দিনের ছুটিতে সস্ত্রীক সিঙ্গাপুর যাওয়ার সরকারি আদেশের (জিও) একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। এই পরিস্থিতিতে বিষয়টি নিয়ে আজ দুপুরে মুখ খুললেন ডিবি প্রধান।

হারুন অর রশীদ তাঁর কার্যালয় সাংবাদিকদের বলেন, ‘সরকারি কর্মকর্তা ও পুলিশ নিয়ে প্রায়ই গুজব ছড়ানো হয়। আমাকে নিয়েও তাই করা হচ্ছে। পুরো বিষয়টি প্রোপাগান্ডা, গুজব। একজন সরকারি কর্মকর্তা যদি বিদেশ যেতে চান, তাঁকে ছুটি নিতে অনেক সময় লাগে। তাঁর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হয়। এই অনুমতির জিও ওয়েবসাইটে দেওয়া থাকে। সেটি যে কেউ দেখতে পারেন।’ 

ডিবি প্রধান বলেন, ‘একজন কর্মকর্তা যেকোনো প্রয়োজনে বিদেশ যেতেই পারেন। পারিবারিক প্রয়োজনেও যেতে পারেন। আমাদের ছুটি বিভিন্ন স্তর পার হয়ে পাস হয়। যারা গুজব ছড়াচ্ছে, তাঁরা তাঁদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের ভিউ বাড়ানোর জন্য এসব করছেন। ভিউ বাড়লে তাঁরা টাকা পাবেন, এটা তাঁদের মূল বিষয়। আসলে তাঁরা সঠিক সত্য দেন না। বিদেশে বসে তাঁরা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। এটা আইনের চোখে ও মানবিক উভয় দিক দিয়েই অপরাধ।’ 

‘যারা গুজব ছড়াচ্ছে তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মনোবল ভাঙতে এটা করছে। এতে কারও মনোবল ভাঙবে না।’ যোগ করেন ডিবি প্রধান। ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদের ছুটির বিষয়ে গত ১ জুন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে জিও প্রকাশ করা। এ সংক্রান্ত এক আদেশে বলা হয়েছে, মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা বিভাগ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অনুকূলে নিজ এবং স্ত্রীর চিকিৎসা গ্রহণের উদ্দেশ্যে সস্ত্রীক সিঙ্গাপুর যাওয়ার জন্য ১৩ দিনের ছুটি মঞ্জুর হয়। ৩ জুন অথবা ছুটি ভোগের দিন থেকে এই ১৩ দিন কার্যকর হবে। শর্ত অনুযায়ী সরকার এ ভ্রমণের কোনো ব্যয় বহন করবে না।