• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ডিবি পরিচয়ে চাঁদাবাজি, পুলিশ ও কথিত সাংবাদিকসহ গ্রেপ্তার ৩

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

সাভারে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তিন ব্যক্তিকে আটকে রেখে মারধর ও টাকা আদায়ের ঘটনায় পুলিশ কনস্টেবলসহ স্থানীয় দুই সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ডিবি পরিচয়ে চাঁদা দাবি করে মারধরের সময় স্থানীয়রা তাদের আটক করে ৯৯৯-এ খবর দিলে থানা পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় তাদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কারও জব্দ করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সাভার মডেল থানা থেকে তাদের ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়। এর আগে রবিবার রাতে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকা থেকে তাদের হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর থানার মো. জহিরুল ইসলাম (৪১), শরীয়তপুর জেলার পালং থানার এনামুল হক শামীম (৩৬) ও রাজবাড়ি জেলার পাংশা থানার মো. মনিরুল (২৭)। এর মধ্যে দুজনের কাছে দুই পত্রিকার আইডি কার্ড পাওয়া। যেখানে জহিরুল ইসলাম দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকা এবং এনামুল হক শামীম দৈনিক আজকের সংলাপ পত্রিকার সাংবাদিক।

এছাড়া মো. মনিরুল ঢাকা জেলা পুলিশ লাইন্সের একজন কনস্টেবল। তিনি সাভারের পুলিশ টাউন ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। তাদের কাছ থেকে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার, নগদ টাকা, হ্যান্ডকাফ ও পত্রিকার আইডি কার্ড জব্দ করা হয়েছে। সেসময় সোহেল নামে এক আসামি পালিয়ে যায়।

ভুক্তভোগীরা হলো- সাভারের ওয়ার্কশপ শ্রমিক শাওন, সুমন হোসেন ও বাসের হেল্পার ইমরান। পুলিশ জানায়, ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে গ্রেপ্তারকৃতরা চাঁদাবাজি করছিল। ভুক্তভোগীদের গাড়িতে তুলে মাদক দিয়ে গ্রেপ্তারের ভয় দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করছিল তারা। পরে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে তাদের আটক করে পুলিশে খবর দিলে থানা পুলিশ গিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হয়েছে বাকি বিভাগীয় বিষয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। এছাড়া এই মামলায় সাংবাদিক পরিচয়দানকারী আরো দুজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।