• শনিবার ২৫ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

এক রাতে ৫ সেচ মেশিন চুরি

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০২৪  

মানিকগঞ্জের ঘিওরে কৃষকের সেচকাজে ব্যবহৃত একরাতে ৫টি শ্যালো মেশিন চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ যেন ‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’ গত কয়েকদিন ধরে এমনিতেই তীব্র দাবদাহ আর খরায় ধানক্ষেতের মাটি ফেটে যাচ্ছে, পানি দিয়ে কুল পাওয়া যাচ্ছে না। এ নিয়ে কৃষকের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ ও হতাশার সৃষ্টি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে ঘিওর থানায় এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী কৃষকরা। গত বুধবার রাতে উপজেলার বালিয়াখোড়া ইউনিয়নের চরকুশান্ডা গ্রামে ও পার্শ্ববর্তী আশাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে চরকুশুান্ডা গ্রামের, কামাল, কনক সরকার এবং পার্শ্ববর্তী চরবিনোড়া গ্রামের স্বপন সরকার, সান্তি বিশ্বাস, অজিত মাস্টার এবং আশাপুর গ্রামের হাতেম আলীর ঝালাই মেশিন চুরি হয়েছে।

ভুক্তভোগী কৃষকরা জানান, এখন ধান ফুলে বের হয়েছে । প্রচণ্ড তাপ আর খরা এমনিতেই বোরো ধানে পানি থাকছে না। এরই মধ্যে শ্যালো মেশিন চুরি হয়ে গেল। এখন কী করে বোর ধানে পানি দেব। ধানক্ষেত ফেটে যাচ্ছে।

ভুক্তভোগী কৃষক অজিত বলেন, প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার সকালে বোরো ধানে পানি দিতে যাই। গিয়ে দেখতে পাই আমার সেচ মেশিন কে বা কারা চুরি করে নিয়ে গেছে। এর কিছুক্ষণ পরেই আশপাশের আরও ৫-৬ জন কৃষক বলেন তাদের মেশিনও নিয়ে গেছে। পরে আমরা বিষয়টি থানা পুলিশকে জানিয়েছি।

তিনি বলেন, বিগত কয়েকদিন আগে একই এলাকায় ১০ থেকে ১২টি সেচ মেশিন চুরি হয়েছে। এর কোনো সুরাহা কৃষকরা পায়নি। এভাবে মেশিন খোয়াতে থাকলে কৃষকরা নিঃস্ব হয়ে যাবে। ঘিওর থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, বোরো ধানে ব্যবহৃত শ্যালো মেশিন চুরির ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ তদন্ত করছে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।