• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

৫ দিন ধরে নিখোঁজ বুয়েটছাত্র তানভীর

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২৪  

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিল্প উৎপাদন প্রকৌশল (আইপিই) বিভাগের স্নাতকোত্তরের ছাত্র মাহমুদুল হাসান তানভীর (২৪) নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় রাজধানীর দক্ষিণখান থানায় জিডি করেছে তানভীরের পরিবার। পরিবার থেকে জানানো হয়েছে, পাঁচ দিন ধরে তানভীরের কোনো খোঁজ নেই, তার ফোনেও কল যাচ্ছে না। 

তবে দক্ষিণখান থানা পুলিশের দাবি, তানভীর বাসায় ফোন রেখে গেছে। ফলে প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে ট্র্যাক করা যাচ্ছে না। জানা যায়, ১৭ মে তানভীর হলে যাবেন বলে বাসা থেকে বের হন। এরপর থেকে তার আর খোঁজ নেই। তিনি হলেও যাননি।
তানভীর বুয়েটের শহীদ স্মৃতি হলে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা।  তানভীরের মা শারমিন সুলতানা জিডিতে উল্লেখ করেছেন, তাদের দুই ছেলে ও দুই মেয়ে। তানভীর সবার বড়।

১৪ মে বুয়েটের শহীদ স্মৃতি হল থেকে সে বাসায় আসে। ১৭ মে বিকেল সাড়ে ৩টায় হলে যাবে বলে বের হয়ে যায়। পরে তার সঙ্গে তারা যোগাযোগের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে রাত ৯টার দিকে তাকে কল দিয়ে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তার পরনে ছিল ফর্মাল শার্ট-প্যান্ট।

তার উচ্চতা ৬ ফুট ১ ইঞ্চি। গায়ের রঙ উজ্জ্বল শ্যামলা আর স্বাস্থ্য মাঝারি গড়নের। তানভীরের মা আরো উল্লেখ করেন বুয়েটের শহীদ স্মৃতি হলে গিয়ে তার সহপাঠীদের কাছে ও আত্মীয়স্বজনের বাসায় খোঁজ-খবর নিয়েছি। এরপর থানায় জিডি করেছি, তারপরও তার খোঁজ পাচ্ছি না।

মঙ্গলবার বিকেলে তানভীরের বাবা সাইদুর রহমান বলেন, ‘আমি পরিবারসহ দক্ষিণখানের পূর্ব আজমপুর ভাড়া থাকি। ১৭ মে তার বাসা থেকে তানভীর বের হয়ে যায়। এরপরে তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি। পরে রাত ৯টার দিকে তার দুটি ফোন নম্বরও বন্ধ পাওয়া যায়। এরপরে হলে তার সহপাঠীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেও ছেলের কোনো খোঁজ পাইনি। বাসায় তার কোনো মোবাইল ফোন আমরা পাইনি।

এদিকে দক্ষিণখান থানার ওসি শেখ আমিনুল বাশারের দাবি তানভীর তার ব্যবহৃত ফোন বাসায় রেখে গেছেন। মঙ্গলবার বিকেলে তিনি বলেন, ‘১৭ তারিখ বিকেলে হলে যাচ্ছি বলে বের হয়ে যান তানভীর। প্রযুক্তি ব্যবহার করে অবস্থান বের করা সম্ভব হয়নি। আমরা ম্যানুয়ালি খোঁজ করছি।’ বুধবার তদন্তের জন্য একটি টিম বুয়েট ক্যাম্পাসে যাবে বলেও জানান তিনি।