• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বিক্রির সম্ভাবনা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২২ মে ২০২৪  

প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময়সূচি অনুযায়ী নওগাঁর বাগানগুলো থেকে গুটি জাতের আম নামানোর মধ্যে দিয়ে আম পাড়া শুরু হয়েছে। বুধবার (২২ মে) থেকে প্রতিবারের মত জেলা প্রশাসনের সিধান্তে অনুযায়ী এই আম পাড়া শুরু হয়। এছাড়া জাতভেদে আম নামানোর জন্য একটি তালিকাও প্রকাশ করা হয়। গুটি আম পাড়া শুরু হলেও উন্নতজাতের আম বাজারে আসবে আরো কিছুদিন পর।

এ বছর জেলা থেকে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বিক্রির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানায় কৃষি বিভাগ। এছাড়াও এ বছর ১ হাজার মেট্রিক টন আম বিদেশে রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময় অনুযায়ী এরপর ৩০ মে থেকে গোপালভোগ, ২ জুন থেকে ক্ষিরসাপাত ও হিমসাগর, ৫ জুন থেকে নাক ফজলি, ১০ জুন থেকে ল্যাংড়া ও হাড়িভাঙা, ২০ জুন থেকে আম্রপালি, ২৫ জুন থেকে ফজলি এবং আগামী ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারি-৪, বারি-১১, গৌড়মতি ও কাটিমন আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে- এ বছর জেলার ৩৩ হাজার ৩০০ হেক্টর জমির বাগানে আম চাষ হয়েছে। এসব বাগানে ব্যানানা ম্যাংগো, মিয়াজাকি, কাটিমন, গৌড়মতি, বারি আমসহ দেশি-বিদেশি প্রায় ১৬ জাতের আম চাষ করেছেন চাষিরা। নওগাঁ থেকে এ বছর অন্তত ৪ লাখ ৩১ হাজার ৫০০ টন আম উৎপাদনের আশা করছে কৃষি অফিস।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবুল কালাম আজাদ জানান, বুধবার থেকে স্থানীয় গুটি জাতের আম পাড়া তারিখ নির্ধারণ নির্ধারণ করে দেওয়া ছিল। সেই সময় অনুযায়ী চাষিরা গুটি আম নামাবেন।

এছাড়াও উন্নত জাতের যেসব আম আছে সেগুলো বাজারে আসতে আরও কয়েকদিন সময় লাগবে। তিনি বলেন, ‘পরিপক্ব ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মুক্ত আম নিশ্চিত করতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে নির্ধারিত সময়ের আগে যদি কোনো বাগানে আম পেকে যায় তাহলে চাষিরা সেগুলো নামাতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগকে জানাতে হবে।’