• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

নারীকে ‘মামলাবাজ’ আখ্যা দিয়ে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ মে ২০২৪  

মানিকগঞ্জে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগে লাভলী বেগম নামের এক নারীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করেছেন গ্রামবাসী। শনিবার দুপুরে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে সংবাদ সম্মেলন শেষে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন সদর উপজেলার দিঘী ইউনিয়নের গুলটিয়া গ্রামের শতাধিক ভুক্তভোগী। 

সংবাদ সম্মেলনে দিঘী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. লাভলু মিয়া বলেন, ‘গুলটিয়া গ্রামের আব্দুল বারেক মিয়ার স্ত্রী লাভলী বেগম একজন মামলাবাজ নারী। তিনি কারও সঙ্গে কোনো কিছু নিয়ে তর্কবিতর্ক হলে থানায় গিয়ে সত্য-মিথ্যা মিশিয়ে হয়রানিমূলক মামলা করেন।’ 

তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘লাভলী বেগম একজন নারী হয়ে পুরুষের মতো আচরণ করেন। হাঁস-মুরগি নিয়ে প্রতিবেশী কারও সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হলে তাঁর বাড়িতে গিয়ে মারধর করতে যান। তাঁর বাড়িতে কোনো হাঁস-মুরগি, ছাগল গেলে তা নিজের বলে দাবি করেন।’ 
 
লাভলু মিয়া বলেন, ‘তা ছাড়া তিনি সমাজের কোনো আইন মানেন না। পুরুষদের হয়রানি করার জন্য নিজের ইজ্জতহানির মিথ্যা অভিযোগে মামলা করতে দ্বিধাবোধ করে না। মেম্বার-চেয়ারম্যানদের কথা না শুনে তাঁদের উল্টো অপমান করেন। তিনি প্রতিবেশীদের ১০০ বছরের পুরোনো চলাচলের রাস্তায় টয়লেট তৈরি করে ১০টি পরিবারকে গৃহবন্দী করে রেখেছেন।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘মামলাবাজ লাভলী বেগম একাধিক বিয়ে করেছেন। তাঁর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে একই ইউনিয়নের ভাটভাউর গ্রামবাসী তাঁকে গ্রাম থেকে বিতাড়িত করে। বর্তমানে আমরা গুলুটিয়া গ্রামবাসী তাঁর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি। 

তাঁর ব্যাপারে অবগত করে আমরা জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।’ এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে লাভলী বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ চেষ্টা করা হলে তাঁর মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া গেছে। 

সদর উপজেলার দিঘী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আখতার উদ্দিন আহমেদ (রাজা) বলেন, ‘এলাকাবাসীর সঙ্গে আমিও একমত। এই নারীর বিচার আমিও করতে ভয় পাই। লাভলীর বিরুদ্ধে কিছু করতে গেলে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করেন। তাঁর বিচার প্রশাসন ছাড়া কেউ করতে পারবে না। আমিও তাঁর বিচার চাই।’ মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিল হোসেন বলেন, ‘এই বিষয়ে আমি এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে অভিযোগ পেলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’