• রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৬

কয়েক ঘণ্টার বর্ষণে ডুবল সিলেট নগর

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২৪  

মাত্র আড়াই ঘণ্টার টানা বর্ষণে ফের ডুবেছে সিলেট নগর। বৃষ্টিতে নগরের রাস্তাঘাট, বাসাবাড়িতে ফের ঢুকেছে পানি। ডুবেছে সিলেট বিভাগের চিকিৎসা সেবার সবচেয়ে বড় প্রতিষ্ঠান সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। শনিবার (৮ জুন) রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিরতি দিয়ে বৃষ্টি শুরু হয়।

রাত সাড়ে ৯টা থেকে টানা ভারি বর্ষণ শুরু হয়। আর এতে ডুবতে শুরু করে নগরের বিভিন্ন এলাকা। আবহাওয়া অফিস সিলেট সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে এবং রাত ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ২২০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। আর তাতে সিলেট নগরের দরগা মহল্লা, পায়রা, জালালাবাদ, চৌহাট্টা, মিরবক্সটুলা, জামতলা, মনিপুরী রাজবাড়ি, মিরের ময়দান, সোবহানীঘাট, তেররতন, মেন্দিবাগ এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এবং খবর নিয়ে জানা গেছে ভারী বর্ষণ শুরুর ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যে বেশিরভাগ এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। অনেক এলাকায় প্রথমে সড়ক ডুবে যায়। এরপর বাড়িঘরে পানি উঠতে শুরু করে। 

নগরের দরগাহ মহল্লার বাসিন্দা ও চৈতন্য প্রকাশনীর সত্ত্বাধিকারী কবি রাজীব চৌধুরী বলেন, ‘রাত ১০টার দিকেই আমার পাড়ার রাস্তা ডুবে যায়। পরে প্রায় তিন ফুটের মতো পানি উঠে গেলে আমাদের বাসার সিঁড়ির গোড়া পর্যন্ত পানিতে ডুবে যায়। ’ তবে রাত ১টার দিকে তিনি কালের কণ্ঠকে জানান, পানি কিছুটা নেমেছে। নগরের লামাবাজার সরষপুরের বাসিন্দা চাকরিজীবী শাহেদ আহমদ রাশেদ বলেন, ‘রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঘরে পানি ঢুকতে শুরু করে। কিছুক্ষণের মধ্যে ঘর হাটু পানিতে ডুবে যায়।’ নগরের শিবগঞ্জ খাঁর পাড়া এলাকার বাসিন্দা ইমতিয়াজ সাকলাইন বলেন, ‘খাঁর পাড়া, সোনারপাড়া এলাকা ও এর আশপাশে হাটু পানি হয়ে গেছে।’ ভারি বর্ষণ নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় সাত দিন আগে ৩ জুন ডুবেছিল সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল।

সাত দিনের মাথায় ফের পানিবন্দি হয়েছে চিকিৎসা সেবায় সিলেটের সর্ববৃহৎ প্রতিষ্ঠান সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। শনিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হওয়া টানা ভারী বৃষ্টিপাতে ডুবে গেছে ওসমানী হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজ এলাকা। বৃষ্টি শুরুর পর প্রথমে হাসপাতাল এলাকা পানিতে ডুবে পরে রাত ১১টার দিকে পানি হাসপাতাল ভবন ও ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের ভবনগুলোতে প্রবেশ করে। হাসপাতালের করিডোর হয়ে বিভিন্ন বিভাগে পানি প্রবেশ করে। পার্শ্ববর্তী ওসামানী মেডিক্যাল কলেজ ভবন, ক্যান্টিন পানিতে নিমজ্জিত হয়ে যায়।

হাসপাতাল পানিবন্দি হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সৌমিত্র চক্রবর্তী। তিনি  বলেন, ‘হাসপাতাল এলাকা ডুবার পর পানি হাসপাতাল ভবনেও ঢুকেছে। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিভাগগুলোতে পানি ঢুকা ঠেকানো গেছে এখন পর্যন্ত।’ এর আগে গত রবিবার (২ জুন) রাত থেকে টানা ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে গত সোমবার ভোর ৫টার দিকে জলমগ্ন হয়ে পড়ে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। হাসপাতালের ভেতরে পানি প্রবেশ করে চরম দুর্ভোগে পড়েন রোগী, স্বজন ও চিকিৎসকরা। তবে বিকেল ৩টার পর পানি নেমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।