• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

সোনা ও টাকা লুট, হাতেনাতে গ্রেফতার ৪

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২৩  

রাজধানীর শ্যামপুরে এক সোনা ব্যবসায়ীর কাছ থেকে প্রায় ৩৮ দশমিক ৯৭ ভরি সোনা ও নগদ তিন লাখ ৪৬ হাজার টাকা লুট করে পালানোর সময় চক্রের চারজনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। গ্রেফতারদের মধ্যে বরখাস্ত হওয়া পুলিশ সদস্য ও বিশেষ বাহিনীর সাবেক সদস্য রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. আলম (৬২), মো. আলমগীর হোসেন (৩৯), মো. পলাশ শেখ (৩৫), মো. সাব্বির হোসেন (৩৪)। তাদের মধ্যে আলম বরখাস্ত পুলিশ সদস্য ও আলমগীর বিশেষ বাহিনীর সদস্য বলে পরিচয় দিয়েছেন। বুধবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর মিন্টু রোডে ডিএমপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) ড. খ. ম মহিদ উদ্দিন।

তিনি বলেন, ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা বাজারের জ্যোতি জুয়েলার্সের মালিক তপন কুমার সাহা (৪২)। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে তিনি ফরিদপুর থেকে ঢাকায় আসেন এবং তাঁতীবাজারে তার মামা প্রাণতোষ কর্মকারের রাজকোট বুলিয়ন অ্যান্ড জুয়েলার্স প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রেতাদের অর্ডারের ৩৮ দশমিক ৯৭ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার তৈরি করে এবং মামার কাছ থেকে ধার হিসেবে নগদ তিন লাখ ৪৬ হাজার টাকা একটি হাত ব্যাগে নিয়ে আলফাডাঙ্গার উদ্দেশ্যে সিএনজি অটোরিকশায় করে পোস্তগোলা যাচ্ছিলেন।

পথে শ্যামপুর থানা এলাকার ঢাকা-মাওয়া সড়কে পোস্তগোলা ব্রিজের পূর্ব পাশের ঢালে পৌঁছালে কেরানীগঞ্জের দিক থেকে আসা একটি সাদা রংয়ের মাইক্রোবাস হঠাৎ সিএনজির গতিরোধ করে। এরপর আসামিরা মাইক্রোবাস থেকে নেমে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দেন এবং সিএনজি থেকে তাকে নামিয়ে মাইক্রোবাসে তুলে নেন। পরে হাত-পা ও চোখ বাঁধার চেষ্টা করলে তাতে বাধা দেওয়ায় আসামিরা তাকে কিলঘুষি মারতে থাকেন। একপর্যায়ে তাকে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে সঙ্গে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা ভর্তি ব্যাগ এবং দুটি মোবাইল ফোন কেড়ে নেন।

তিনি আরও বলেন, আসামিরা গাড়িটি ঢাকার দিকে নিয়ে যেতে থাকে। কিছু দূরে যাওয়ার পর রাস্তায় যানজটে পড়ে গাড়ি ঘুরিয়ে উল্টোপথে রওনা হলে দায়িত্বরত সার্জেন্ট গাড়িটি সিগন্যাল দিয়ে থামান এবং গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চান ও উল্টোপথে আসার কারণ জিজ্ঞেস করেন। এসময় আসামি আলমগীর নিজেকে বিশেষ বাহিনীর কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেয়। অপহৃত ব্যক্তি তপন কুমার পুলিশকে দেখে গাড়ির ভেতর থেকে চিৎকার দিলে আসামিরা পালানোর চেষ্টা করে। এসময় শ্যামপুর থানা পুলিশের টহল টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে আসামিদের আটক করেন। পরে তাদের আদালতে হাজির করে পুলিশ।