• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

চিকিৎসা হচ্ছে না সংগীত শিল্পী খোকনের: অর্থের সঙ্কট

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২৩  

বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত সংগীত শিল্পী মনিরুল ইসলাম খোকন এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। অর্থাভাবে তার চিকিৎসা হচ্ছে না। তার হার্টের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে সিআরটি মেশিন (প্রেস মেকার) স্থাপন করা জরুরি। এতে ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা প্রয়োজন। কিন্তু তার পরিবার এ ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে পারছে না। মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার খান বানিয়ারা গ্রামে নিজ বাড়িতে বিনা চিকিৎসায় খোকনের দিন কাটছে।

এক হাজারেরও বেশি গানের গীতিকার খোকন ১৯৭৯ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হন। এরপর গানের টিউশনি করে তিনি কোনো রকমে সংসার চালাতেন। মাঝে-মধ্যে বেতার ও বিটিভি থেকে সামান্য সম্মানী পেতেন। ২০১৯ সালের পর থেকে তাকে আর ডাকা হয় না। জেলা শিল্পকলা একাডেমি থেকে বছরে তিনি সামান্য ভাতাও পান। সম্প্রতি উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির শিক্ষক পদ থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় তিনি অর্থ সংকটে পড়েন।

এরইমধ্যে তার হার্ট অ্যাটাক হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তিন মাস আগে তাকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা জানান, হার্টের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনতে তার বুকে প্রেস মেকার স্থাপন করতে হবে। খোকনের স্ত্রী সুফিয়া আক্তার ঝর্ণা বলেন, টাকার অভাবে একজন শিল্পী বিনা চিকিৎসায় ধুঁকছেন। স্বামীর চিকিৎসার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  সহযোগিতা কামনা করেন। খোকন দুই সন্তানের জনক।