• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

স্ত্রীর যাবজ্জীবন, পরকীয়া প্রেমিকের ফাঁসি

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২৪  

কুমিল্লার বরুড়ায় শরীফ উদ্দিন নামে পল্লী বিদ্যুতের এক কর্মকর্তাকে হত্যার দায়ে তার স্ত্রীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ঘটনায় ওই স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিককে মৃত্যুদণ্ড (ফাঁসি) দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদেরকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ চতুর্থ আদালতের বিচারক জাহাঙ্গীর হোসেন এ রায় দেন।


মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট মো. আবু ইউসুফ মুন্সী এদিন সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন জেলার বরুড়া উপজেলার চেঙ্গাছাল এলাকার নাসিরুল আলমের ছেলে আশিকুজ্জামান (২৭) ও বরুড়া পল্লী বিদ্যুৎ কর্মকর্তা শরিফ উদ্দিনের স্ত্রী মোনালিসা হিমু (২৮)। নিহত শরিফ উদ্দিন সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাট এলাকার বাসিন্দা।

তিনি বরুড়া আড্ডা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ইনচার্জ ছিলেন। অ্যাডভোকেট আবু ইউসুফ মুন্সি জানান, ২০২০ সালের ১৫ জানুয়ারি রাতে কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শরিফ উদ্দিনকে তার ভাড়া বাসায় হত্যা করা হয়। পরদিন থানায় ডাকাতি ও হত্যা মামলা করেন স্ত্রী হিমু। পরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে প্রকৃত ঘটনা উঠে আসে।

মামলার চার্জশিটে আসামি করা হয় হিমু ও তার প্রেমিক আশিকুজ্জামানকে। এরপর আসামিরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তিনি আরো জানান, নিহত শরিফের স্ত্রী হিমু তার পরকীয়া প্রেমিকের সহযোগিতায় স্বামীকে হাতুড়ি দিয়ে মাথায় আঘাত করেন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ মামলায় হিমুর তিনটি নাবালক সন্তান থাকায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও অপর আসামি আশিকুজ্জামাকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেন।