• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

বিল চাওয়ায় পল্লীবিদ্যুতের ৫ কর্মীকে মারধর

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

ঢাকার সাভারে একটি বসত বাড়ির পল্লীবিদ্যুতের ৬ মাসের বকেয়া বিল চাওয়ায় মারধরের শিকার হয়েছেন পল্লীবিদ্যুৎ-৩ শিমুলতলা জোনাল অফিসের পাঁচ কর্মকর্তা ও কর্মচারী। এ ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সাভার পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের উত্তর জামসিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী পল্লীবিদ্যুৎ কর্মীরা হলেন- জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার মো. রিপন আলী, এনফোর্সম্যান কোঅর্ডিনেটর মো. গোলাম হোসেন, লাইনম্যান মো. সানি হাসান, লাইনম্যান জয় সিকদার ও লাইনম্যান সৈকত রায়হান। এ ঘটনায় পল্লীবিদ্যুৎ-৩ শিমুলতলা জোনাল অফিসের এজিএম মো. আবদুল মোত্তালিব হোসেন বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্তরা হলেন- উত্তর জামসিং এলাকার মৃত ইব্রাহীম মিয়ার ছেলে মো. রিপন, মো. সেলিম, মোছা. মনিরা বেগম, মো. সুমন এবং ওই একই এলাকার মৃত সোনা মিয়ার ছেলে আ. রশিদ। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ৬ মাসের বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের ১০ হাজার ৫৬৭ টাকা চাইতে গেলে অভিযুক্তরা বকেয়া বিল প্রদানে টালবাহানা করে।

এসময় বিধি মোতাবেক তাদের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গেলে পল্লীবিদ্যুতের স্টাফদেরকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও লাঠি এবং লোহার রড দিয়ে এলোপাথাড়ি মারধর করতে থাকে। পরে আহত ব্যক্তিদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে তাদের উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে পল্লীবিদ্যুৎ-৩ শিমুলতলা জোনাল অফিসের এজিএম মো. আবদুল মোত্তালিব হোসেন বলেন, সরকারি কাজে ডিউটি পালন করতে গিয়ে এ ধরনের হামলার শিকার হওয়াটা সত্যিই দুঃখজনক ও অনাকাঙ্ক্ষিত। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) নয়ন কারকুন বলেন, এ ঘটনায় দায়ের করা লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।