• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

হত্যার হুমকি; বাড়িতে হামলা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঢাকার সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান সুজনের বাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সাভার মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন সাইদুর রহমান সুজন। এর আগে, বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকায় সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়িতে আকস্মিক এই হামলার ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় তিনজন আহতসহ প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে বলে দাবি সাবেক এই চেয়ারম্যানের। এ ঘটনায় আহতরা হলেন, মো. আশরাফ (৪০), মো. রনি (২৮), রাইসুল ইসলাম ইনজিয়াল (১৮)। অপরদিকে হামলায় অভিযুক্তরা হলেন, আসলাম হোসেনের ছেলে মো. মামুন হাসান (৩৮), মৃত আক্কাছ আলীর ছেলে ফরিদুল ইসলাম (৪০), এখলাছ মিয়ার ছেলে মোস্তফা মিয়া, মৃত আলী মিয়ার ছেলে ফরিদুল ইসলাম (৪০) সহ অজ্ঞাত ৪ থেকে ৫ জন।

অভিযুক্তদের একাধিকবার ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। হামলার আহত রাইসুল ইসলাম ইনজিয়াল বলেন, ঘটনার দিন ৮/১০ জন লোক দেশীয় অস্ত্রসহ আমাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ির প্রধান ফটক ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। এসময় তারা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও আমাদের লোকজনদের মারধর করে। বিরুলিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান সুজন কালবেলাকে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চিহ্নিত ভূমিদস্যু মামুন হোসেন ও তার লোকজন আমার বাড়িতে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা করে। এসময় আমার বড় ছেলে রাইসুল ইসলাম ইনজিয়ালসহ তিনজন আহত হয়েছে।

এছাড়া ভাঙচুর করে কমপক্ষে ২ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করে সন্ত্রাসীরা। নেক্কারজনক এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে সাইদুর রহমান সুজন বলেন আমি চেয়ারম্যান ছিলাম, স্থানীয় আওয়ামী রাজনীতির গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছি। সমাজে আমার একটি অবস্থান রয়েছ। বিনা কারণে আমার বাড়িতে হামলা করে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আমার সামাজিক মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করেছে। আমি এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ বিষয়ে মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও বিরুলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) দিদারুল ইসলাম  বলেন, সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।