• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শিক্ষায় সহযোগিতা এলএনজি নিয়ে আলোচনার আশা

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২৩  

বাংলাদেশে শিক্ষা খাতে কাতার উন্নয়ন তহবিলের সহযোগিতার বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারকের (এমওইউ) খসড়া তৈরি করেছে দুই দেশ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলতি কাতার সফরে আলোচনা শেষে এটি সই করা হতে পারে। এ ছাড়া আলোচনায় বিশেষভাবে গুরুত্ব পেতে পারে কাতার থেকে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির প্রসঙ্গ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাতার সফর নিয়ে গতকাল সোমবার সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেছেন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতার জন্য একটি এমওইউ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে কথাবার্তা চলছে। এ বিষয়ে বেশ অগ্রগতি হয়েছে। এটি স্বাক্ষরের সম্ভাবনা রয়েছে।

এ সফরে এলএনজি আমদানির বিষয়ে কোনো সমঝোতা হবে কি না, জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেছেন, এলএনজি নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে। এটি দীর্ঘমেয়াদি আলোচনা প্রক্রিয়া। চলতি সফরে এ ধরনের চুক্তি হবে কি না, সে ব্যাপারে তাঁরা নিশ্চিত নন। তবে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি এগিয়ে যাবে বলে তাঁরা আশা করছেন।

কাতারের সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় প্রায় এক হাজার ২০০ নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা কর্মী কাতারে পাঠানোর বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কাতারের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ভালো হওয়ায় আরো নতুন নতুন সুযোগ হবে।

বাংলাদেশে প্রতিরক্ষা খাতে বিশেষজ্ঞ জনবল আছে। বাংলাদেশ এগুলো কাতারকে দিতে পারে।

তিন দিনের সরকারি সফরে গতকাল রাত ৯টার দিকে কাতারের দোহায় পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী কাতারের হামাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছলে কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম তাঁকে স্বাগত জানান।

এর আগে শেখ হাসিনা এবং তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট গতকাল বিকেল ৩টা ১৩ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, সংসদ উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরী, চিফ হুইপ নুর-ই-আলম চৌধুরী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, মন্ত্রিপরিষদসচিব, সেনা, বিমান ও ভারপ্রাপ্ত নৌবাহিনী প্রধান, মহাপুলিশ পরিদর্শক এবং কূটনৈতিক কোরের ডিন বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী কাতারের আমির তামিম বিন হামাদ আল থানির আমন্ত্রণে ‘তৃতীয় কাতার অর্থনৈতিক ফোরাম : নতুন বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির গল্প’ শীর্ষক ফোরামে যোগ দেবেন। তিন মাসের মধ্যে কাতারে প্রধানমন্ত্রীর এটি দ্বিতীয় সফর। এর আগে গত মার্চের প্রথম সপ্তাহে এলডিসি সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী কাতারে যান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, তিন মাসের মধ্যে কাতারে প্রধানমন্ত্রীর দুই দফা সফর আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের দৃশ্যমান উপস্থিতির পাশাপাশি ভ্রাতৃপ্রতিম কাতারের সঙ্গে বাংলাদেশের নিবিড় বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের স্বাক্ষর বহন করে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তৃতীয় কাতার অর্থনৈতিক ফোরামে শেখ হাসিনা ছাড়াও রুয়ান্ডা, হাঙ্গেরি, জর্জিয়া, ঘানা, প্যারাগুয়ে ও ইরাকের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এই ফোরামে জ্বালানি নিরাপত্তা, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন, পরিবর্তিত বাজার ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য খাতে উদ্ভাবন, জলবায়ু অর্থায়ন, বাণিজ্য কৌশল ও ব্যবস্থা, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে জনশক্তি, ডিজিটাল বিশ্বে ক্রীড়া এবং বৈদেশিক বিনিয়োগের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী আজ কাতার অর্থনৈতিক ফোরামের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। এরপর তিনি কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি সমাবেশে যোগ দেবেন। সেখানে তিনি উপস্থিত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিজ্ঞতাসহ বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করবেন। স্থানীয় সময় আজ দুপুরে শেখ হাসিনার সঙ্গে কাতারের জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এবং সৌদি আরবের বিনিয়োগবিষয়ক মন্ত্রী সাক্ষাৎ করবেন। আজ রাতে প্রধানমন্ত্রী কাতার অর্থনৈতিক ফোরামের নৈশ ভোজে অংশ নেবেন।

সফরসূচি অনুযায়ী, আগামীকাল বুধবার সকালে ফোরামে অংশ নেওয়া প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনা’ শীর্ষক একটি সাক্ষাৎকারভিত্তিক অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। কাতারের আমিরের সঙ্গে আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গত মার্চে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাতারের মহামহিম আমিরের বৈঠকের ধারাবাহিকতায় পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে বলে ধারণা করা যাচ্ছে। এরপর প্রধানমন্ত্রী কাতার ফাউন্ডেশনের আওতাধীন ‘আওসাজ একাডেমি’ নামের বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের জন্য পরিচালিত একটি বিদ্যালয় পরিদর্শন করবেন।

উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের আওতায় বাংলাদেশ ও কাতার প্রায় প্রতিবছর একযোগে অটিজম সচেতনতার বিষয়ে অনুষ্ঠান আয়োজন করে থাকে। সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী আগামী বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকায় ফিরবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল কাতারের হামাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছলে কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. নজরুল ইসলাম তাঁকে স্বাগত জানান। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাতার ইকোনমিক ফোরামে যোগ দিতে দোহায় গেছেন। গতকাল হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে বিদায় জানান সংসদ উপনেতা, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য,  চিফ হুইপসহ সামরিক, বেসামরিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।