• শনিবার ২৫ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ফরিদপুরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি শেখ হাসিনার

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০২৩  

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয়ী হয়ে ক্ষমতায় এলে ফরিদপুরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলায় ডা. কাজী আবু ইউসুফ স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগের এক জনসমাবেশে এ প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রতিটি গ্রামে স্কুলগুলো উন্নত করে দিচ্ছি। রাস্তাঘাটের উন্নতি করে দিয়েছি। শিক্ষার দ্বার উন্মুক্ত করে দেওয়ার জন্য আমরা প্রায় প্রতি জেলায় জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় করে দিয়েছি। আমি জানি ফরিদপুরে কোনও বিশ্ববিদ্যালয় নাই। দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো, ফরিদপুরে যে মেডিক্যাল কলেজ ছিল মাত্র ২৫০ বেডের। আমি সরকারে আসার পর সেই মেডিক্যাল কলেজের উন্নতি করে দিয়েছি। বিভাগে এখন পর্যন্ত চারটি মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় করে দিয়েছি।’

ফরিদপুর সবচেয়ে পুরনো একটা শহর হলেও সবসময় অবহেলিত উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এই ফরিদপুরের সার্বিক উন্নয়ন, সেই সঙ্গে প্রতিটি উপজেলায়…নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে মানুষ স্বাধীনতা পেয়েছে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে বলেই সমগ্র দেশের উন্নতি হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘ফরিদপুরে, আমি জানি সকলের অনেক দিনের আশা, এখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয় করার। ইনশাআল্লাহ, আগামীতে সরকারে আসতে পারলে আমরা সেই বিশ্ববিদ্যালয় করে দেবো।’ শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রত্যেকটি উপজেলায় আমরা কারিগরি স্কুল করে দিচ্ছি। আমাদের ছেলেমেয়েরা কারিগরি-ভোকেশনাল ট্রেনিং যাতে পায়, কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়, সেটা আমরা করে দিচ্ছি।’

মেয়েদের শিক্ষা অবৈতনিক করে দেওয়ার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, মেয়েদের কাজের সুযোগ করে দিয়েছি। প্রাইমারি শিক্ষক মেয়েরাও ৬০ পার্সেন্ট পাবে, সেভাবে আমরা ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ২০০৮ সালের নির্বাচনি ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ওয়াদা দিয়েছিলেন, তা স্মরণ করিয়ে দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল। এখন সবার হাতে মোবাইল ফোন। সবাই অনলাইন ব্যবহার করে।