• মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯

  • || ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মাদানীর বিচার শুরু

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২২  

গাজীপুরের গাছা থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ‘শিশুবক্তা’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত।

ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন বুধবার আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর দিন ঠিক করে দেন। 

অভিযোগ গঠনের পক্ষে শুনানি করেন ট্রাইবুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নজরুল ইসলাম শামীম। আর আসামির অব্যাহতি চান আইনজীবী মো. রাব্বী। 

শুনানি শেষে আসামির অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে বিচারক গঠনের আদেশ দেন বলে ট্রাইবুনালের পেশকার শামীম আল মামুন জানিয়েছেন।

গাজীপুর মহানগরের বাড়িয়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনে মারকাজুন নূর আল ইসলামিয়া নামে একটি আবাসিক মাদ্রাসা রয়েছে। হাফেজ রফিকুল ইসলাম মাদনী ওই মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ও পরিচালক।

গত বছরের ৭ এপ্রিল রাতে গাজীপুরের গাছা থানায় তার বিরুদ্ধে এই মামলা করেন র‍্যাব-১-এর ডিএডি আবদুল খালেক।


গাজীপুর বোর্ডবাজারের কলমেশ্বর এলাকায় একটি কারখানা চত্বরে গত বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি এক ওয়াজ মাহফিলে ‘সরকারকে কটাক্ষ করে’ বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ আনা হয় সেখানে।

মামলা হওয়ার আগেই গত ৭ এপ্রিল নেত্রকোণার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় রফিকুল ইসলামকে। সেসময় তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। সেখানে বেশকিছু পর্ন ভিডিও পাওয়ার কথা জানায় র‌্যাব।

পরদিন তাকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গাছা থানায় হস্তান্তর করা হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। তদন্ত শেষে মাদানীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় তদন্তকারী সংস্থা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরকে কেন্দ্র করে গত বছরের ২৫ মার্চ বিক্ষোভকালে ঢাকার মতিঝিল এলাকা থেকে রফিকুলকে আটক করেছিল পুলিশ। পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ওই ঘটনার মামলায় তখন তাকে আসামি করা হয়নি।