• রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ২ ১৪২৮

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরবে মাত্র দুই মিনিটে

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০২১  

উজ্জ্বল কোমল ত্বক সবারই কাম্য। আজকাল ত্বকের রং উজ্জল করার হরেক রকম প্রসাধনী বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। যা দামেও বেশ চওড়া। তবে এসব প্রসাধনী ত্বকের রং ক্ষণিকের জন্য উজ্জ্বল করলেও, দীর্ঘসময়ের ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই কালচে ত্বকের যত্নে এসব প্রসাধনী এড়িয়ে চলাই উত্তম।

তাছাড়া ঝটপট ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে আপনি ভরসা রাখতে পারেন ঘরোয়া পদ্ধতির উপর। অনেকেই ভাবেন তাৎক্ষণিকভাবে তো আর ত্বক উজ্জ্বল করা যাবে না এবং ত্বকের কালচে ভাবও দূর করা যাবে না। ধারণাটি ভুল। তাৎক্ষণিকভাবেই ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে পাওয়ার রয়েছে কার্যকরী এক কৌশল। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই কৌশলটি-

যা যা লাগবে

তিন টেবিল চামচ তিল, তিন টেবিল চামচ তিলবীজ, এক কাপ পানি।

তৈরি ও ব্যবহার পদ্ধতি

প্রথমে চাল ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিন। এরপর তিল ও পানি একসঙ্গে মিশিয়ে ১ কাপ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। সকালে পানি ঝড়িয়ে হামান দিস্তায় পিষে অথবা গ্রাইন্ডারে গ্রাইন্ড করে মিশ্রণ তৈরি করুন। একেবারে মিহি করে ফেলবেন না, আবার অনেক বড় দানাও রাখবেন না এভাবে পিষে নিন।

এই মিশ্রণটি সকালে স্ক্রাবের মতো করে পুরো ত্বকে লাগিয়ে নিন এবং ২ মিনিট রেখে দিন। ২ মিনিট পর আলতো করে ঘষে নিন এবং ঠাণ্ডা পানিতে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে এই স্ক্রাবটি দিয়ে পুরো দেহ স্ক্রাব করে নিতে পারেন দেহের ত্বকের তাৎক্ষণিক উজ্জলতার জন্য।

একটি এয়ার টাইট কনটেইনারে ভরে ৭ দিন পর্যন্ত ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে পারেন এই স্ক্রাবটি। তবে ভালো ফলাফলের জন্য দুদিন পর পর নতুন করে মিশ্রণ বানিয়ে নিন।

মিশ্রণটি যেভাবে কাজ করে

চালের দানা ত্বকে স্ক্রাবের মতো ব্যবহৃত হয়, যার ফলে ত্বকের উপরের মরা চামড়া খুব ভালো করে দূর হয়ে যায়। সেই সঙ্গে ত্বকের উপরিভাগে জমে থাকা ময়লা দূর করে ত্বকের আসল দীপ্তি ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করে।

তিলবীজ ত্বকের জন্য অনেক কার্যকরী একটি উপাদান। তিলের তেল অনেক আগে থেকেই রূপচর্চার কাজে ব্যবহার হয়ে আসছে। এই মিশ্রণের পিষে নেয়া তিল ত্বককে নারিশ ও ময়েসচারাইজ করে, যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে তাৎক্ষণিকভাবেই।