• রোববার   ২৩ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১০ ১৪২৮

  • || ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আজ ধানুয়া কামালপুর মুক্ত দিবস

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০২১  

আজ ৪ ডিসেম্বর শনিবার, জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার ধানুয়া কামালপুর মুক্ত দিবস। ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পাহাড় ঘেঁষা উপজেলার ধানুয়া কামালপুর ১৯৭১ সালের আজকের এ দিনেই মুক্ত হয়।


ধানুয়া কামালপুর মুক্তিযুদ্ধে ১১ নং সেক্টরের আওতায় ছিলো। আর স্বাধীনতা যুদ্ধে এ সেক্টরের ভূমিকা ছিলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যুদ্ধের শুরুতেই হানাদার বাহিনী এ এলাকায় গড়ে তুলে শক্তিশালী ঘাঁটি। আর পাক হানাদার বাহিনীর এ ঘাঁটি দখলের মধ্য দিয়ে সূচিত হয় শেরপুর, জামালপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল ছাড়াও দেশের উত্তর মধ্যাঞ্চলের জেলা গুলোসহ ঢাকা বিজয়ের পথ।

১১ নং সেক্টরের সদর দপ্তর ছিল উপজেলার ধানুয়া কামালপুর থেকে ২ কিলোমিটার দূরে ভারতের মহেন্দ্রগঞ্জ থানায়। আর সীমান্তের এপারেই ধানুয়া কামালপুরে ছিল পাক হানাদারবাহিনীর শক্তিশালী ঘাঁটি। রণকৌশলের দিক থেকে তাই মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট ধানুয়া কামালপুর ঘাঁটি দখল করা ছিল গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

কামালপুর বিজয়ের লক্ষ্যে একাত্তরের ১১ নভেম্বর পাক সেনাদের শক্তিশালী ঘাঁটিতে আক্রমণ শুরু করে মুক্তিযোদ্ধারা। মুক্তিযোদ্ধাদের আক্রমণে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে এ ঘাঁটির হানাদারররা।

২৩ দিন অবরুদ্ধ থাকার পর ৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় হানাদার বাহিনীর অফিসার আহসান মালিকের নেতৃত্বে ১৬২ জন সৈন্যের একটি দল যৌথবাহিনীর কাছে আত্মসর্মপন করতে বাধ্য হয়। শত্রুমুক্ত হয় ধানুয়া কামালপুর।

জানা গেছে, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রথম বিজয়ের স্মারক আজ দুপুরে ধনুয়া কামালপুর হাইস্কুল মাঠে কামালপুর মুক্ত দিবস পালিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপস্থিত থাকবেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে আরও উপস্থিত থাকবেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা, মুরাদ হাসান,ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান, সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদসহ আরও অনেকেই।