• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩১ ১৪২৯

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৪

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের হাজারো ঝুঁকিপূর্ণ গাছ অপসারণের তাগিদ

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারি ২০১৯  

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের দু’পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শত বয়সী অনেক গাছই মারা গেছে। বেসরকারি টিভি চ্যানেল ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের এক প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে তার কিছু চিত্র। দীর্ঘদিনেও অপসারণ না করায় এসব মৃত গাছের ডাল ভেঙ্গে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় মৃত গাছ সরিয়ে মহাসড়কে নতুন করে গাছ লাগানোর তাগিদ দিয়েছেন পরিবেশবিদরা।

ঢাকার নবীনগর থেকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট পর্যন্ত মহাসড়কের দু’পাশে চোখে পড়বে শতবর্ষী সেগুন, মেহগনি, রেনট্রি ও কড়ইসহ নানা প্রজাতির বড় গাছ। সড়ক দুর্ঘটনা রোধের লক্ষ্যে লাগানো এসব গাছের বেশিরভাগই মারা গেছে। নিষ্প্রাণ ডালপালা নিয়ে কঙ্কালের মতো দাঁড়িয়ে আছে গাছগুলো।

মহাসড়কে নিয়মিত চলাচলকারী যানবাহন চালক ও স্থানীয়রা বলছেন, দুর্ঘটনা রোধে লাগানো হলেও এসব গাছই এখন হয়ে দাঁড়িয়েছে দুর্ঘটনার কারণ। মৃত গাছগুলোর ডাল-পালা পড়ে প্রায়ই আহত হয় মানুষ। 

পর্যাপ্ত যত্ন না নেয়ার ফলেই শতবর্ষী গাছগুলোর এই অবস্থা বলছেন পরিবেশবিদেরা। তাদের দাবি- অবিলম্বে এগুলো সরিয়ে নতুন গাছ লাগাতে হবে। সেই আশ্বাসও দিয়েছে সড়ক বিভাগ।

পরিবেশবিদ দীপক কুমার ঘোষ বলেন, ভাইরাস ও পোকা-মাকড়ের আক্রমণের কারণে অনেক সময় গাছগুলো মরে যায়। প্রাণ প্রকৃতিকে রক্ষা করতে হলে গাছগুলোর পরিচর্যা করা দরকার।

মানিকগঞ্জ এর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আব্দুর রহিম বলেছেন, পর্যবেক্ষণের সময় নির্ধারণ করা  যাবে ২০ হাজার গাছের মধ্যে কতগুলো গাছ মৃত রয়েছে। মৃত গাছ নির্ধারণ করার পর পর্যায়ক্রমে অপসারণের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ৫৭ কিলোমিটার সড়ক জুড়ে শতবর্ষী গাছের সংখ্যা প্রায় ২০ হাজার। ব্যস্ততম ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের দু'পাশে হাজারো ঝুঁকিপূর্ণ গাছ অপসারণ করার উদ্যোগের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী  সাধারণ মানুষ।