• শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৭ ১৪২৯

  • || ০১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

পুলিশ স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২০ মে ২০২২  

টাঙ্গাইলে প্রতারণা ও যৌতুক দাবির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল স্বামীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্ত্রী। বুধবার (১৮ মে) দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন সোনিয়া আক্তার নামের ওই নারী। সোনিয়া আক্তার মির্জাপুর উপজেলার আগ ছাওয়ালী গ্রামের সরোয়ার মিয়ার মেয়ে ও পুলিশ কনস্টেবল স্বামী কবির হোসেনের স্ত্রী।

অভিযুক্ত কবির হোসেন বর্তমানে ঢাকা মিরপুর-১৪ পুলিশ লাইনসে কর্মরত। তিনি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার আমন গ্রামের মোতালেব মিয়ার ছেলে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সোনিয়া আক্তার বলেন, ফেসবুকে কবির হোসেনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি তারা ঢাকায় বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে নির্যাতন চালাতে থাকেন কবির। এক পর্যায়ে যৌতুক দাবি করেন। এ পর্যন্ত তার কাছ থেকে ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা নিয়েছেন। এখন যোগাযোগ বন্ধ রেখেছেন কবির হোসেন।

তিনি আরও বলেন, ‘কবিরের আগেও বিয়ে হয়েছিল। সে কথা লুকিয়ে রেখে আমাকে বিয়ে করেন। আমি কবিরের সুষ্ঠু বিচার চাই।’কনস্টেবল কবির হোসেনের বিরুদ্ধে শিগগির মামলা করবেন বলে জানান ভুক্তভোগী সোনিয়া আক্তার।

সংবাদ সম্মেলনে সোনিয়া আক্তারের ছোট ভাই মিরাজ বলেন, ‘আমার বোনের সঙ্গে যা হয়েছে তা সম্পূর্ণ বেআইনি। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’ সোনিয়া আক্তারের মা নাজমা বেগম বলেন, ‘কবির আমার মেয়ের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তার উপযুক্ত শাস্তি চাই।’

সোনিয়া আক্তারের বাবা সরোয়ার মিয়া বলেন, ‘পুলিশ মানুষের নিরাপত্তা দেয়। সেখানে কবির আমার মেয়ের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তার পুলিশে থাকা মানায় না। সুষ্ঠু বিচার চাই।’ এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল কবির হোসেনের মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।