• বুধবার   ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৯ ১৪২৯

  • || ১০ রজব ১৪৪৪

চাঁদাবাজি বন্ধে বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ

মানিকগঞ্জ বার্তা

প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩  

অটোরিকশায় পুলিশের চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি তুলে আশুলিয়ার নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন আটোরিকশাচালকরা। এসময় মহাসড়কের দুইপাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আশুলিয়ার বলিভদ্র এলাকায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন চালকরা। পরে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশ্বাসে প্রায় দেড় ঘণ্টা পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

বিক্ষুব্ধ অটোরিকশা চালকদের অভিযোগ, বিকেলে সাভার ট্র্যাফিক পুলিশের উপ-পরিদর্শক হেলাল উদ্দিনসহ দুই পুলিশ সদস্য মহাসড়কে অটোরিকশা চালানোর অপরাধে এক চালকের কাছ থেকে রেকার বিল দাবি করেন। এসময় ওই অটোরিকশাচালক তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তাকে মারধর করেন।

এ খবর অন্য চালকদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে বলিভদ্র এলাকায় অবস্থান নেন তারা। একপর্যায়ে তারা নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে অবরোধ করে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ উপস্থিত হয়ে ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিয়ে বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে তুলে দেন।
মারধরে আহত অটোরিকশাচালক নাজমুল হাসান বলেন, সড়কে শতশত অটোরিকশা চলছে। দুইজন পুলিশ সদস্য মোটরসাইকেলে এসে আমাকে ধরে ২৬০০ টাকা দাবি করেন। আমি তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করতেই তারা আমাকে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেন।

তবে ট্রাফিক পুলিশের অভিযুক্ত উপ-পরিদর্শক (এসআই) হেলাল উদ্দিন বলেন, অবৈধ যান মহাসড়কে চালানোর দায়ে তাকে থামার সংকেত দিলে পালাতে চেষ্টা করে। একপর্যায়ে তাকে আমরা ধরে ফেললে সে ধস্তাধস্তি করে। এসময় আমার ওয়ারলেসের খোঁচায় তার কপাল সামান্য ছিলে যায়। পরে আমি তাকে ৫০০ টাকা চিকিৎসার জন্য দিয়ে চলে আসি।